পারিবারিক বিবাদে প্রাণ গেল একরত্তি শিশুর। ঘুমন্ত অবস্থায় তাকে শ্বাসরোধ করল খুন কাকা ও জেঠিমা! অভিযোগ তেমনই। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মালদহের মানিকচকে। অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  

মৃত শিশুর নাম আদর্শ মণ্ডল। বাড়ি, মানিকচকের নাজিরপুরের বেগমগঞ্জে। শিশুটির বাবা কর্মসূত্রে ভিনরাজ্যে থাকেন। দুই সন্তানকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে থাকতেন মা শমিতা। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, সোমবার বিকেলে সন্তানদের ঘরে ঘুম পাড়িয়ে রেখে মাঠে ঘাস কাটাতে গিয়েছিলেন তিনি। বাড়ি ফিরে দেখেন, দুই বছরের একরত্তি শিশুটি বারান্দায় পড়েছে, মুখ থেকে রক্ত বেরোচ্ছে! ঘটনাটি জানাজানিতে হতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। 

আরও পড়ুন: ভাতারে সুড়ঙ্গ ঘিরে ঘনাচ্ছে রহস্য, নমুনা সংগ্রহ পুরাতত্ত্ব বিভাগের

কিন্তু একরত্তি শিশুকে কে এমন নির্মমভাবে খুন করল? মৃতার মায়ের দাবি, সম্পত্তি নিয়ে স্বামীর সঙ্গে ভাইদের বিবাদ চলছিল। বেশ কয়েকবার তাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়েছিল ভাসুর ও দেওরের পরিবারের লোকেরা। মারধরও করা হয়েছে।  জেঠু ও কাকিমাই পরিকল্পনমাফিক শিশুটিকে খুন করেছে বলে অভিযোগ। অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঠিক কী কারণে খুন, তা জানতে ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করছেন তদন্তকারীরা।  উল্লেখ্য, কয়েক মাসে মুর্শিদাবাদের কান্দিতে খুন হয়ে যায় বছর চারেকের এক শিশুকন্যা। প্রতিবেশীর বাড়ি পিছনের ঝোপ থেকে তার রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সামান্য কানের দুলের লোভে ওই শিশুকে খুনের অভিযোগ ওঠে প্রতিবেশী দুই মহিলার বিরুদ্ধে। গ্রেফতার করা হয় তাদের।