কার মূর্তিতে মালা দিয়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করলেন? কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সফরকে ঘিরে বিতর্ক তুঙ্গে বাঁকুড়ায়। বিরসা মুন্ডাকে অপমান করার অভিযোগে বিক্ষোভ দেখালেন তৃণমূল কর্মী-সমর্থক ও আদিবাসীদের একাংশ। গঙ্গাজল ও দুধ নিয়ে শুদ্ধিকরণ অভিযান চলল এলাকায়।

আরও পড়ুন: বাংলায় রাষ্ট্রপতি জারি হচ্ছে না কি হচ্ছে না , সাফ ভাষায় উত্তর দিলেন অমিত শাহ

ঘটনাটি ঠিক কী? দু'দিনের সফরে বুধবার রাতে কলকাতায় পৌঁছন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। রাতটুকু শহরে কাটিয়ে বৃহস্পতিবার বাঁকুড়ায় চলে যান তিনি। রবীন্দ্রভবনে বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে বৈঠক করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এরপর মধ্যাহ্নভোজ সারেন চতুরদিহি গ্রামে, বিভীষণ মাহাতো নামে আদিবাসী সম্প্রদায়ের এক ব্যক্তির বাড়িতে। শুধু তাই নয়, বাঁকুড়া শহর লাগোয়া পুয়াবাগান এলাকায় 'আদিবাসীদের ভগবান' বিরসা মুন্ডার মূর্তিতে মালা দিয়ে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন অমিত শাহ। আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে জমে উঠেছে বিতর্ক।

কেন? বাঁকুড়া জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের দাবি, যে মূর্তিতে মালা দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়ে গিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, সেই মূর্তি বিরসা মুন্ডার নয়! পুরুলিয়া-বাঁকুড়ার রাজ্য সড়কের সৌন্দর্য্যায়নের জন্য চৌমাথার মোড়ে ওই মডেলটি বসানো হয়েছে। এমনকী, শাসকদলের দাবি সমর্থন করেছেন আদিবাসীদের একাংশও। তাঁদের বক্তব্য,  একটি মডেলকে বিরসা মুন্ডার মূর্তি বলে শ্রদ্ধা জানিয়ে আদিবাসী সমাজকে অপমান করেছেন অমিত শাহ। প্রতিবাদে বাঁকুড়া শহর  লাগোয়া পুয়াবাগান এলাকায় মূর্তি সামনে তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের আদিবাসীদের একাংশ বিক্ষোভও দেখালেন একযোগে। দুধ ও গঙ্গাজল দিয়ে মুর্তি ও লাগোয়া এলাকা শুদ্ধ করলেন বিক্ষোভকারীরা।

আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশের বিজেপি-এর অপশাসন নিয়ে নীরব কেন, অমিত শাহ-কে পাল্টা প্রশ্ন তৃণমূলের

এদিকে এই ঘটনার 'আদিবাসীদের ভগবান' বিরসা মুন্ডাকে নিয়ে তৃণমূলের  বিরুদ্ধে নোংরা রাজনীতি করার অভিযোগ করেছে বিজেপি। বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ-এর দাবি, পুয়াবাগানে যে মূর্তি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, সেই মূর্তিটি বিরসা মুন্ডারই। মূর্তি বিতর্ক ফের রাজনীতির পারদ চড়ল বাঁকুড়ায়।