তিন কেজি প্লাস্টিক জমা দিলে মিলবে এক কেজি পেঁয়াজ। এমনই অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে পূর্ব বর্ধমানের পাল্লারোড পল্লীমঙ্গল সমিতি। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, পরিবেশকে প্লাস্টিক মুক্ত করতেই তাদের এই উদ্যোগ। 

তবে এই প্রথমবার নয়। এর আগেও সমাজ সচেতনতার পাঠ দিতে হেলমেট পরা বাইক আরোহীদের হাতে পেঁয়াজ তুলে দিয়েছিলেন তারা। এবার সেই ধারা বজায় রাখলেন সংস্থার সদস্য়রা। বৃহস্পতিবার রসুলপুরে শুরু হয়েছে মেমারি ব্লক আয়োজিত কৃষি মেলা। সেখানেই পল্লিমঙ্গল সমিতি র স্টলে দেওয়া হচ্ছে এই সুবর্ণ সুযোগ। যেখানে ৩কেজি প্লাস্টিক দিলেই তাদের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে ১ কেজি পেঁয়াজ।  তবে নিরাস করা হচ্ছে না দেড় কেজি ওজনের প্লাস্টিক সরবরাহকারীদের। তাদের হাতেও তুলে দেওয়া হচ্ছে ৫০০ পেঁয়াজ।

এছাড়া প্লাস্টিক ও থার্মোকল ব্যবহার বন্ধ করতে মাটির থালা, গ্লাস,বাটি টব ইত্যাদির প্রদর্শনী ও বিক্রির ব্যবস্থা থাকছে দোকানে। থাকছে সেফ ড্রাইভ সেভ লাইভ ও অগ্নি সুরক্ষার বিষয়ে প্রচারের ব্য়বস্থা। সংস্থার কর্মকর্তা সন্দীপন সরকার জানিয়েছেন, ৩কেজি 'সিঙ্গল ইউজড' প্লাস্টিকের বদলে ১কেজি পেঁয়াজ দেওয়ার সিদ্ধান্ত একেবারে পরিকল্পিত।  আশপাশে পড়ে থাকা প্লাস্টিক পরিবেশকে দূষিত করে। তা নষ্ট করতেই এই উদ্য়োগ।

ইতিমধ্যেই দুর্মূল্যের বাজারে পেঁয়াজ পেয়ে ভিড় উপচে পড়েছে স্টলে। পরিস্থিতি এমন হয়েছে, যাতে নতুন করে পেঁয়াজ আনতে হয়েছে সমিতিকে। স্টলে ভিড় দেখে ভালো লেগেছে উদ্য়োক্তাদের। তাদের মতে, কিছু পাওয়ার আশায় যদি মানুষকে প্লাস্টিক ছাড়ানো যায়,তাহলে সেটা সাধু উদ্য়োগ বলেই গণ্য হবে।