সকালের ব্যস্ত সময়ে রেললাইনে ফাটল। অল্পের জন্য বড়সড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেল বারাকপুর লোকাল। শুক্রবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগণার খড়দহ স্টেশনের কাছে। ঘটনার জেরে সকালে শিয়ালদহ মেন শাখায় বেশ কিছুক্ষণ ব্যাহত হয় ট্রেন। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় রেললাইন মেরামতি করে ফেলেন রেলের কর্মীরা। ঘণ্টা দেড়েক বাদে ফের পরিষেবা স্বাভাবিক হয় শিয়ালদহ মেন লাইনে।

খড়িতে তখন সকাল ৯টা বেজে ১৫ মিনিট। খড়দহ স্টেশনে অদূরে ৪ নম্বর রেলগেটের কাছে আনন্দপুর এলাকায় রেললাইনে ফাটল দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁদের দাবি, রেললাইনে ফাটল দেখে সঙ্গে সঙ্গেই রেলের কেবিন খবর দেওয়া হয়।  কিন্তু তারপরেও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ।  এদিকে ততক্ষণে শিয়ালদহগামী ব্যারাকপুর লোকাল খড়দহ স্টেশনে কাছাকাছি চলে এসেছে।  ট্রেনের চালককে সতর্ক করার জন্য স্থানীয় বাসিন্দারা চিৎকার-চেঁচামিচি করতে শুরু করেন বলে জানা গিয়েছে।  কিন্তু তাতেও কোনও লাভ হয়নি। তখন বাধ্য হয়েই কাপড় ও গামছা হাতে রেললাইন ধরে ছুটতে শুরু করেন। শেষপর্যন্ত শিয়ালদহগামী বারাকপুর লোকাল থামিয়ে দেন চালক। তাঁকে রেললাইনে ফাটলের বিষয়টি জানান স্থানীয় বাসিন্দারা। খবর পৌঁছয় রেলের পদস্থ আধিকারিকদের কাছে।

খড়দহ স্টেশনে কাছে যে এলাকা রেললাইনে ফাটল দেখা গিয়েছিল, সেখানে যান রেলের পদস্থ আধিকারিকরা। রেললাইন মেরামতির নির্দেশ দেন তাঁরা। সাময়িকভাবে শিয়ালদহ মেন শাখায় বন্ধ করে দেওয়া হয়। ঘন্টা দেড়ে বাদে ফের স্বাভাবিক ট্রেন চলাচল শুরু হয় ওই লাইনে। এদিকে সকালের ব্যস্ত সময়ে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ার বিপাকে পড়েন যাত্রীরা।