সল্টলেকের সঙ্গে সঙ্গে বারাসাতের পুজোর উদ্ধোধনও করছেন মোদি। মহাষষ্ঠীতে দিল্লির নিজ বাসভবন থেকে ধুতি পাঞ্জাবি পরে একেবারেই বাঙালিয়ানায় সল্টলেকের ইজেডসিসিতেই ভারচুয়াল মাতৃবন্দনা করবেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এবং সেই সঙ্গে বারাসাতের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের নিশিথ রায় চৌধুরির বাড়ির পুজো উদ্ধোধন করবেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

 

 

আরও পড়ুন, 'জানি না সম্ভব কিনা-সরকার প্য়ান্ডেলের টাকাও দিচ্ছে, সেখানে বাধা নেই', রায় বেরোতেই বিস্ফোরক অধীর

 

আদর্শ আর অপটিক্যাল ফাইবার দুই মিলেমিশে একাকার


প্রসঙ্গত, রামকৃষ্ণ মিশন থেকে প্রকাশিত উদ্বোধন পত্রিকার লেখক ও টেলিকম বিভাগের অবসর প্রাপ্ত ইঞ্জিনিয়ার নিশিথ রায় চৌধুরি। তার কথা কর্মজীবনে অপটিক্য়াল ফাইবার ছড়িয়ে দিয়েছিলেন তিনিই। তিনি রামকৃষ্ণের পাশাপাশি বিবেকানন্দেরও ভক্ত। এদিকে দেশের প্রধানমন্ত্রীরও আদর্শ  রামকৃষ্ণ এবং বিবেকানন্দ। তাই আদর্শ আর অপটিক্যাল ফাইবার দুই মিলেমিশে একাকার হয়ে গিয়েছে। তাই সেই অপটিক্য়াল ফাইবারেরই মাধ্যমে ভার্চুয়ালে  বারাসাতের ৩০ নম্বর ওয়ার্ডের নিশিথ রায় চৌধুরির বাড়ির পুজো উদ্ধোধন করবেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

আরও পড়ুন, 'দুর্গার কাছে আশীর্বাদ প্রার্থনা', পঞ্চমীতে বাংলায় টুইট মোদির

 

 

শুধু অপেক্ষা ভোর  অপেক্ষায় বারাসাতবাসী

অপরদিকে, হাইকোর্টের রায় বেরোনোর পর সল্টলেকের ইজেডসিসিতে শুধু মহাষষ্ঠীর দিনে মোদির মার্তৃবন্দনা-ভাষণ এবং  ডোনা গঙ্গোপাধ্যায়ের নাচের অনুষ্ঠান সূচি অপরিবর্তিত থাকছে। বাকি দিনগুলি সপ্তমী থেকে নবমীর সকল অনুষ্ঠান সূচি বাতি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মুকুল রায়। উল্লেখ্য, ১৯৫৪ সালে বাংলায় আসার পর ১৯৯২ থেকে  উমা মায়ের পুজো হয়ে আসছে। বলতে গেলে সেভাবে কোনও দিন উদ্ধোধনের মাধ্যমে পুজো হয়নি। তবে এবার করোনা আবহে বছরের শেষ প্রান্তে এসে ভাল খবর পেয়ে বারাসাতবাসী খুব খুশি। শুধু অপেক্ষা ভোর কখন হবে।