জোর করে টাকা আদায় করার অভিযোগে শিক্ষক দিবসে এক অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষককে গ্রেফতার করে পুরুলিয়ার নেতুড়িয়া থানার পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে,ওই ব্যক্তির নাম দেবদত্ত মণ্ডল (৭৮) তিনি সালতোড় কোলিয়ারি বাংলা হাইস্কুলের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক। দেবদত্তবাবু পারবেলিয়া ক্যাম্প ইসিএল কোয়ার্টারে থাকতেন বলে জানা গিয়েছে। 

ফের বিজেপি কর্মীদের উপর হামলা, গাঙ্গুলি বাগানে কাঠগড়ায় তৃণমূল

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন ওই গ্রামেরই শেখ শাহির। অভিযোগ নেতুড়িয়া থানার চৌরাসি রেল সাইডিং থেকে গাড়িতে মাল নিয়ে আসা নিয়ে যাওয়ার জন্য অন্যায়ভাবে টাকা চাইতেন ওই শিক্ষক। তার অভিযোগের ভিত্তিতেই পুলিশ গ্রেপ্তার করে দেবদত্ত বাবুকে। রবিবার তাকে রঘুনাথপুর মহকুমা আদালতে হাজির করে পুলিশ। ইতিপূর্বেও ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ী, কারখানার মালিক, এমনকি কয়েকজন রাজনৈতিক ব্যক্তির কাছেও অন্যায়ভাবে টাকা চাওয়ার অভিযোগ রয়েছে। 

এক ছোলার ডালে সারা দেশ, ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডসে রূপজিৎ.

এখানেই শেষ নয়, কয়েকজন সরকারি আধিকারিকের কাছেও তাদের কর্তৃপক্ষের কাছে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানানোর ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। শেখ সাহির জানান, তিনি ইসিএলের কোয়ার্টারেও অবৈধভাবে থাকতেন। যদিও অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি জানান, তাকে কি কারণে গ্রেপ্তার হয়েছে তিনি জানেনা।

"

এদিকে নেতুড়িয়া থানার সালতোড় পারবেলিয়া এলাকায় যথেষ্ট সুনাম রয়েছে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকের। দেবদত্ত বাবুর বেশ কয়েকজন প্রাক্তন ছাত্র ছাত্রী জানান বরাবরই প্রতিবাদী চরিত্র ছিলেন ইংরেজির শিক্ষক দেবদত্ত মন্ডল।শিক্ষক দিবসের দিনে অবসর  প্রাপ্ত শিক্ষক  গ্রেফতারের ঘটনায় তাই ষড়যন্ত্র রয়েছে বলেও দাবি উঠছে এলাকা থেকে।