শুভজিৎ পুততুণ্ড, বারাসত-উর্দি পরে রাজনৈতিক দলের কর্মসূচিতে পুলিশকর্মীর যোগদান! ঘটনার জেরে বিধানসভা ভোটের আগে ফের বিতর্ক জড়াল তৃণমূল কংগ্রেস। পথ দুর্ঘটনায় মৃত তৃণমূল নেতার স্মরণসভায় উর্দি পরে সংবর্ধনা নিতে দেখা গেল থানার ওসিকে। বারাসতের এই ঘটনায় ব্যাপক বিতর্ক শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসতেই শাসকদলের সমালোচনায় বিজেপি, সিপিএম ও কংগ্রেস।

আরও পড়ুন-শনিবার শীতের আমেজে শহরে সূর্যোদয়, দেশজুড়ে শৈত্যপ্রবাহের সর্তকতা

চাঞ্চল্যকর এই ছবি ধরা পড়েছে বারাসতে। বারাসত থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক দীপঙ্কর ভট্টাচার্য উর্দি পরে উপস্থিত হন তৃণমূল নেতার স্মরণসভায়। সেখানে উর্দি পরেই তাঁকে দেখা গেল সংবর্ধনা নিতে। জানাগেছে, কয়েক মাস আগে বাঁকুড়া থেকে ফেরার পথে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিল বারাসত পুরসভার প্রাক্তন কাউন্সিলর তথা প্রশাসক বোর্ডের সদস্য প্রদ্যুৎ ভট্টাচার্য। একইসঙ্গে, মৃত্যু হয়েছিল বারাসত তৃণমূলের যুব নেতা প্রণব ভট্টাচার্যের। তৃণমূলের এই দুই নেতার মৃত্যুতে স্মরণসভার আয়োজন করেছিল তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠন। বারাসত হরিতলা হকার্স ইউনিয়নের পক্ষ থেকে এই আয়োজন করা হয়। সেখানেই উর্দি পরে হাজির হন বারাসত থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি দীপঙ্কর ভট্টচার্য। তাঁকে ঘিরে রাজনৈতিক মহলে বিতর্ক শুরু হয়েছে। সমালোচনায় বিজেপি, সিপিএম এবং কংগ্রেস।

আরও পড়ুন-কালীপুজোয় আলোর উৎসবে মেতেছে কালীঘাট-দক্ষিণেশ্বর, জওয়ানদের সঙ্গে দীপাবলি পালন করবেন মোদি

উর্দি পরে থানার ওসি তৃণমূল কর্মসূচি নিয়ে তীব্র সমালোচনা করেছে বিজেপি। বারাসত বিজেপির সাংগঠনিক জেলা সভাপতি শঙ্কর ভট্টাচার্যের অভিযোগ, পুলিশ শাসকদলের হয়ে কাজ করছেন, আর থানা হয়ে গিয়েছে তৃণমূলের পার্টি অফিস। বারাসতের ঘটনা তার জলজ্যান্ত উদাহরণ। প্রসঙ্গত, এর আগে বিজেপির এক রক্তদান শিবিরে উপস্থিত থাকতে দেখা গিয়েছিল দত্তপুকুর থানার ওসিকে। তাঁকে বিতর্কের জেরে বদলির কোপে পড়েছিলেন সেই পুলিশ অফিসার। এবার তৃণমূলের কর্মসূচিতে দেখা গেল থানার ওসিকে। তা নিয়ে সমালোচনায় মুখর সিপিএম ও কংগ্রেসও।