করোনা আতঙ্কে যখন ঘরবন্দি বেশিরভাগই মানুষ, তখন কর্তব্যের খাতিরে রাস্তায় নেমেছেন তাঁরা। লকডাউন উপেক্ষা করে একজন যেন বাইরে না বেরোন! সদা সতর্ক রাজ্যের পুলিশকর্মীরা। আর এবার রক্তের সংকট মেটাতেও এগিয়ে এলেন উর্দিধারী। জেলা পুলিশের উদ্যোগে ধারাবাহিক রক্তদান কর্মসূচি চলছে বাঁকুড়ায়।

আরও পড়ুন: রাস্তার মোড়ে মোড়ে করোনার ছবি এঁকে অভিনব প্রচার পুলিশ

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে ও আক্রান্তদের সুস্থ করতে আপ্রাণ লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন চিকিৎসকরা। ব্লাড ব্যাঙ্কগুলিকেও তো সচল রাখতে হবে! কারণ, থ্যালাসেমিয়া আক্রান্তরাই শুধু নন, অন্য রোগীদেরও রক্তের প্রয়োজন হতে পারে যেকোনও সময়েই। করোনা সংক্রমণের আশঙ্কাকে দূরে সরিয়ে রেখে এবছরও গ্রীষ্মের শুরুতে রক্তদান কর্মসূচিতে সামিল হলেন বাঁকুড়া জেলার পুলিশকর্মীরা। বুধবার থেকে রক্তদান শিবির চলছে বাঁকুড়া সদর থানায়। প্রতিদিন নিয়ম করে জেলার এক একটি থানার কর্মী, এমনকী আধিকারিকরা রক্ত দিচ্ছেন। এই কর্মসূচির মাধ্যমে ১৫০০ ইউনিট রক্ত সংগ্রহ করার লক্ষমাত্রা ধার্য করা হয়েছে বলে  জানা গিয়েছে।  শুধু তাই নয়, হঠাৎ করে কোনও রোগীর যদি রক্তের প্রয়োজন, সেক্ষেত্রেও সংশ্লিষ্ট থানায় যোগাযোগ করার পরামর্শ দিয়েছেন জেলার পুলিশের কর্তারা। জেলার প্রতিটি থানা এলাকায় দু'হাজারেরও বেশি সিভিক ভলান্টিয়ার, পুলিশকর্মী ও আধিকারিককে প্রস্তুত রাখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: ধেয়ে আসছে জোড়া ঘূর্ণাবর্ত, প্রবল ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা কলকাতা সহ রাজ্য়ে

উল্লেখ্য, গ্রীষ্মের শুরুতে প্রতিবছর রাজ্যের সর্বত্র রক্তের সংকট দেখা দেয়। পরিস্থিতি মোকাবিলায় গত বেশ কয়েক বছর ধরে রক্তদান শিবিরের আয়োজন করছে বাঁকুড়া জেলা পুলিশ। এবার করোনা আতঙ্কে সেই কর্মসূচিতে ছেদ পড়ল না!