মোবাইল, ইন্টারনেটের যুগে শিশু মনও যেন প্রযুক্তির জালে বন্দি হয়ে যাচ্ছে। পালকি চড়া, বায়োস্কোপ, গুলি বা ক্যারম খেলা, এসব কিছুর থেকে বর্তমান প্রজন্ম অনেক দূরে। প্রবীণ নাগরিকদের স্মৃতিতে হয়তো ফিরে ফিরে আসে ছেলেবেলার এই সুখস্মৃতিগুলি। আর সেই নস্টালজিয়াকে আর একটু উস্কে দিতেই এবছর জলপাইগুড়ি পাতকাটা কলোনি কালচারাল ক্লাব ও পাঠাগারের ভাবনা 'মুছে যাওয়া দিনগুলি আমায় যে পিছু ডাকে।'

এবছর ৬১ বছরে পা দিল জলপাইগুড়ির অন্যতম প্রাচীন এবং জনপ্রিয় এই পুজো। প্রতি বছরই পুজোয় নতুন নতুন ভাবনায় চমকে দেয় পাতকাটা কলোনি। এবারও তার ব্যতিক্রম নয়। পুজোর মণ্ডপের মধ্যেই ফুটে উঠবে পালকি, বায়োস্কোপ, গুলি খেলা, পিট্টু, ক্যারম খেলার মতো পুরনো দিনের নানা ছবি। উদ্যোক্তারা মনে করছেন, এই ভাবনা যেমন বয়স্ক নাগরিকদের ছোটবেলার স্মৃতি উস্কে দেবে, তেমনই নতুন প্রজন্মও পালকি বা বায়োস্কোপের মতো হারিয়ে যাওয়া বিষয়গুলির সঙ্গে পরিচিত হবে। 

সারাবছরই নানা ধরনের সামাজিক কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্ত থাকে পাতকাটা কলোনির পুজোর উদ্যোক্তারা। ডেঙ্গি সচেতনতা থেকে শুরু করে রক্তদান শিবির, নানা উদ্যোগ নেওয়া হয়। পুজোর কয়েকদিনও দুঃস্থদের বস্ত্রদান, খাওয়ানোর ব্যবস্থা করা হয় পুজো কমিটির পক্ষ থেকে।