শান্তিপূর্ণ ভোটের প্রতিচ্ছবি সকাল থেকে দেখতে পেল না বঙ্গবাসী। ৫ জেলার ৩০ আসনে ভোটগ্রহণে সকাল থেকেই একাধিক অশান্তির খবর মিলেছে। কোথাও আক্রান্ত হয়েছে প্রার্থী স্বয়ং, কোথাও আবার গাড়ি ভাঙচুর হয়েছে প্রার্থীর নির্বাচনী এজেন্টের। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কাঠগড়ায় শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু বুথের সামনে বিরোধী দলের কর্মীকে গুলি করার হুমকি দিচ্ছেন শাসকদলের প্রার্থী। এমন ঘটনা নজিরবিহীন। প্রথম দফার ভোটে যার সাক্ষী থাকল পুরুলিয়া।

পুরুলিয়া বিধানসভার তৃণমূল প্রার্থী সুজয় বন্দ্যোপাধ্যায়। তার বিরুদ্ধে বিজেপি কর্মীকে সবার সামনে গুলি করে দেওয়ার হুমকি দিলেন।  পুরুলিয়া শহরের ১২৭ নম্বর বুথের বাইরে তৃণমূল ও বিজেপি কর্মীদের ধাক্কাধাক্কি ঘিরে ধুন্ধুমার বাধে। এরই মধ্যেই পুরুলিয়ার তৃণমূল প্রার্থী সুজয় বন্দ্যোপাধ্যায় এক বিজেপি কর্মীকে গুলি করার হুমকি দেন বলে অভিযোগ। তৃণমূল প্রার্থীর অভিযোগ, ওই বুথে ইভিএমে কারচুপি হয়েছে। এখানে প্রতি তিন নম্বর ভোট যাচ্ছে বিজেপির পক্ষে। যদিও প্রিসাইডিং অফিসার এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

এই ঘটনার পরই উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। দু পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। পরে পুলিস গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু একজন প্রার্থী বুথের সামনে বিরোধী দলের কর্মীকে সরাসরি গুলি করার হুমকি কীভাবে দিলেন, তাই নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। ঘটনাটি নজর এড়ায়নি নির্বাচন কমিশনেরও। সংবাদ মাধ্যমের ফুটেজ খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নিতে পারে কনমিশন। কিন্তু তৃণমূল প্রার্থী সুজয় বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনায় সরব হয়েছে সব মহল।