নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতায় নামা বিক্ষোভকারীদের হাতেই সাধারণ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছিলেন বলে অভিযোগ উঠছিল রাজ্য জুড়ে। এবার নয়া আইনের বিরোধিতায় বেরনো মিছিলে গরম তেল ছোড়ার অভিযোগ উঠল উত্তর চব্বিশ পরগণার আমডাঙায়। শনিবার সন্ধ্যায় আমডাঙা থানার সন্তোষপুরের এই ঘটনায় ছ' জন আহত হন বলে অভিযোগ। যার মধ্যে একজনের চোখ, মুখ- সহ গোটা শরীর ঝলসে গিয়েছে বলে অভিযোগ। আহতদের বারাসত জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

এ দিন বিকেলে আমডাঙা বিডিও অফিসের সামনে থেকে প্রতিবাদ মিছিল শুরু হয়। মিছিল শেষ হয় সন্তোষপুর মোড়ে। অভিযোগ সেখানেই একটি  তেলেভাজার দোকান থেকে মিছিলে অংশগ্রহণকারীদের লক্ষ্য করে কড়াইয়ের গরম তেল ছোড়া হয়। দোকান মালিকের ভাই এই কাণ্ড ঘটায় বলে অভিযোগ। প্রথমে হাতায় তুলে তেল ছিটিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। কিন্তু তাতে বিশেষ ক্ষতি হয়নি মিছিলে অংশগ্রহণকারীদের। তা বুঝতে পেরেই কড়াই তুলে তার মধ্যে থাকা ফুটন্ত তেল মিছিলে জমায়েতকারীদের দিকে ছুড়ে দেয় ওই ব্যক্তি। 

গরম তেল লেগে মিছিলে থাকা ছ' জন আহত হন। তাঁদের মধ্যে হাবিল লস্কর বলে একজনের চোখ, মুখ-সহ শরীরের বিভিন্ন অংশ গরম তেলে ঝলসে যায়। এ ছাডা়ও আহত হয় এক স্কুল ছাত্র। আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে বারাসত জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহতরা আমডাঙা, রায়পুর এবং আওয়ালসিদ্ধি এলাকার বাসিন্দা। 

মিছিলের উদ্যোক্তাদের দাবি, মিছিল শান্তিপূর্ণভাবেই চলছিল। অভিযোগ, যে দোকান থেকে এই হামলা চলে, তার মালিক এবং মালিকের ভাই বিজেপি সমর্থক। হামলা চালানোর পরই এলাকা ছেড়ে পালায় অভিযুক্ত। স্থানীয় সূত্রে অবশ্য দাবি, মিছিল থেকে করা কটূক্তি এবং তার জেরে বচসা থেকেই এই কাণ্ড ঘটে। ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে বিশাল পুলিশবাহিনী। অভিযুক্তের খোঁজে চলছে তল্লাশি।