পশ্চিমবঙ্গে বন্ধ করা হোক দুর্গাপুজো। বাংলায় দুর্গাপুজো বন্ধ না হলে করোনা সংক্রমণ আটকানো সম্ভব নয়। এই দাবিতে মামলা দায়ের হল কলকাতা হাইকোর্টে। মামলাকারীর বক্তব্য, কেরলের ওনাম উৎসবের পর করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি পেয়েছে। এমনকি মহারাষ্ট্রে গণেশ চতুর্থীর পরও বেড়েছে করোনা সংক্রমণ। তেমনই বাংলাতেও দুর্গাপুজোর সময় করোনা সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে। বাংলাকে করোনার হাত থেকে রক্ষা করতে বন্ধ করতে হবে দুর্গা পুজো।

বিশেষজ্ঞদের কথায়, উৎসবের মরসুমেই দেশে করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পাবে। তবে উৎসব বন্ধ না করেই কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকার সমস্ত নিয়মাবলী মেনেই উৎসব পালন করার আবেদন জানিয়েছে। যদিও সেই আবেদন মানার কোনও অবকাশই দেখা যাচ্ছে না সাধারণ মানুষের মধ্যে। মহালয়ার পর থেকেই শহরের রাস্তায় পুজোর বাজারের জন্য ক্রমশ বেড়ে চলেছে ভিড়। এমনকি সেই সকল কেনাকাটার মাধ্যে সামাজিক দূরত্ব তো দূরের বিষয় মাস্কও পরার প্রয়োজনবোধ করছে না অধিকাংশ মানুষ। 

বুধবার জনস্বার্থে মামলা দায়ের করা হয়েছে কলকাতা হাই কোর্টে। বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে এই মামলার শুনানি হওয়ার কথা। অন্যদিকে মহামারীর পরিস্থিতিতে সমস্ত নিয়মাবলী মেনে রাজ্যে দুর্গাপুজো পালনের অনুমতি দিয়েছে রাজ্য সরকার। রাজ্যের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দফতরের শেষ রিপোর্ট অনুযায়ী, মঙ্গলবার পর্যন্ত বাংলায় বর্তমান আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩০ হাজার ৯৮৮ জন। মৃত্যুর সংখ্যা ৫ হাজার ৭৮৮ হাজার জন। গত ২৪ ঘন্টায় মৃতের সংখ্যা ৬২ জন।