Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Fuel Prices- 'বাংলার মেয়ে এখনও ঘুমোচ্ছেন', তেলের দাম কমানো নিয়ে মমতাকে কটাক্ষ শুভেন্দুর

তেলের দাম বাড়তে থাকায় এতদিন কেন্দ্রীয় সরকারকে নিশানা করেছিল বিরোধীরা। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে কটাক্ষ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। কিন্তু, দিওয়ালির আগেই এক্সাইজ ডিউটি দেশবাসীকে উপহার দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

Suvendu Adhikari slams mamata banerjee for not reduce excise duty on fuel price at bengal bmm
Author
Kolkata, First Published Nov 4, 2021, 7:43 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বেশ কয়েক মাস ধরেই বাড়ছিল জ্বালানির দাম। অনেক দিন আগেই রাজ্যে পেট্রোলের দাম সেঞ্চুরি করে ফেলেছিল। তারপর তার পিছু পিছু সেঞ্চুরি হাঁকায় ডিজেলও। তার জেরে বেজায় সমস্যায় পড়েছিলেন মধ্যবিত্তরা। অবশেষে দিওয়ালির (Diwali) ঠিক আগের দিনই কমল জ্বালানির দাম। পেট্রোলে (Petrol) লিটার প্রতি ৫ টাকা ও ডিজেলে (Diesel) লিটার প্রতি ১০ টাকা করে শুল্ক কমায় কেন্দ্রীয় সরকার। ফলে এদিন কলকাতায় (Kolkata) লিটার প্রতি ৫.৮২ টাকা কমে পেট্রলের নতুন দাম দাঁড়িয়েছে ১০৪.৬৭ টাকা এবং ডিজেল হয়েছে ৮৯.৭৯ টাকা। আর এবার এনিয়েই একের পর এক রাজ্য সরকারকে নিশানা করছেন বিরোধী নেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। আজ খেজুরিতে এক কালীপুজোর উদ্বোধনে গিয়ে তিনি বলেন, দীপাবলিতে জ্বালানি তেলের দাম কমাতে এক্সাইজ ডিউটি কমিয়েছে কেন্দ্র। অথচ বাংলার মেয়ে এখনও ঘুমোচ্ছে। 

তেলের দাম বাড়তে থাকায় এতদিন কেন্দ্রীয় সরকারকে (Central Government) নিশানা করেছিল বিরোধীরা। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে কটাক্ষ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও (Mamata Banerjee)। কিন্তু, দিওয়ালির আগেই এক্সাইজ ডিউটি দেশবাসীকে উপহার দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। আর তারপরই রাজ্য সরকারের উপর চাপ সৃষ্টি করতে শুরু করেছে বঙ্গ বিজেপি (Bengal BJP)। এদিন ত্রিপুরা, অসম, উত্তরপ্রদেশের উদাহরণ টেনে শুভেন্দু বলেন, "জ্বালানি তেলের দাম কমাতে কেন্দ্র ডিজেলে ১০ টাকা ও পেট্রোলে ৫ টাকা করে এক্সাইজ ডিউটি কমিয়েছে। কেন্দ্রের ওই সিদ্ধান্তের এক ঘণ্টার মধ্যে ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব পেট্রোলে ৭ টাকা ও ডিজেলে ৭ টাকা করে দাম কমিয়েছেন। যোগী আদিত্যনাথ, হিমন্ত বিশ্ব শর্মাও পেট্রোল, ডিজেলের দাম কমিয়েছেন। কিন্তু বাংলার মেয়ে এখনও ঘুমোচ্ছেন।"

আরও পড়ুন- কালীপুজোর আগেই রাজ্যে ফের বাড়ল দৈনিক করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা, মৃত ১৪

আরও পড়ুন- নার্সিংহোম স্বাস্থ্যসাথী কার্ডে ভর্তি না নিলে ফোন করুন, নম্বর দিল নবান্ন

খেজুরি বিধানসভার বিদ্যাপীঠে মাতৃ বন্দনা পরিচালিত কালীপুজোর উদ্বোধন করেন শুভেন্দু। প্রদীপ জ্বালিয়ে ও ফিতে কেটে পুজোর উদ্বোধন করেন তিনি। তারপরই সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে জ্বালানি তেলের দাম কমানো নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর দিকে কটাক্ষ ছুড়ে দেন। তিনি বলেন, "বাংলার মেয়ে পশ্চিমবাংলাতে তেলের দাম কমানোর ব্যবস্থা করবেন না। কারণ তিনি ১০০ টাকা পেট্রোলের মধ্যে নিজে ৪৩ টাকা নিয়ে যান। আর তাঁর ছানাদের বাজারে নামিয়ে দেন মোদিজিকে মুর্দাবাদ বলার জন্য।" পাশাপাশি তেলের দাম কমারো জন্য মোদীর প্রশংসা করেছেন শুভেন্দু। একই সঙ্গে আবার ইউপিএ-২ সরকারকে কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি তিনি। বলেন, "ইউপিএ-২ সরকার পেট্রোপণ্যের বন্ড ছেড়ে গিয়েছিল। সরকারের সেই ঋণ এখনও শোধ করছে বর্তমান ভারত সরকার। কারণ মোদীজি চান, আত্মনির্ভর ভারত, বাণিজ্যের ভারত। আগামী ২২ সাল পর্যন্ত এই ঋণ শোধ করতে হবে ভারত সরকারকে। তারপরও কেন্দ্র পেট্রোল, ডিজেলের উপর এক্সাইজ কর কমিয়েছে।"

আরও পড়ুন- উৎসবের মরশুমেই বাড়ছে সংক্রমণ, ১২ নভেম্বর পর্যন্ত মুর্শিদাবাদে বন্ধ বাজার-দোকান

 

 

গতকাল কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে এক্সাইজ ডিউটি কমানোর কথা ঘোষণার পরই টুইট করেছিলেন শুভেন্দু। তিনি লেখেন, "পেট্রোলের উপর আরোপিত আবগারি শুল্ক ৫ টাকা এবং ডিজেলের উপর ১০ টাকা কমানোর যে সিদ্ধান্ত ভারত সরকার নিয়েছে তাঁকে আমি আন্তরিকভাবে স্বাগত জানাই।" তারপর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে টুইটে উদ্ধৃত করে তিনি লেখেন, "দিওয়ালিতে দেশকে উপহার দিলেন প্রধানমন্ত্রী। এবার রাজ্য সরকারের উচিত তাদের শুল্ক কমিয়ে পেট্রোপণ্যের দাম আরও কমিয়ে আনা।" আর আজ পুজোর উদ্বোধনে গিয়ে এই ইস্যু নিয়েই রাজ্য সরকারকে ফের নিশানা করলেন তিনি। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios