মা কালীর চোখ থেকে অঝোরে পড়়ছে জল। আজব এই ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। খবর চাউর হতেই দূর দূরান্ত থেকে লোক এসে জড়ো হয়েছে ওই মন্দির প্রাঙ্গণে। নজিরবিহীন ঘটনা নিজের চোখে চাক্ষুস করতে হাজির হন আশেপাশের বাসিন্দারাও। তিরের গতিতে খবর ছড়াচ্ছে জেলার বিভিন্ন প্রান্তে। বিষয়টির সত্যতা জানতে হাজির বিজ্ঞান মঞ্চের সদস্যরাও।

আরও পড়ুন-পঞ্চাশ বছর আগের ক্যালেন্ডারই ২০২১ সালের দিনপঞ্জী, কেন ও কীভাবে

আজ এই ঘটনার সাক্ষী মুর্শিদাবাদ। বহরমপুরের কৃষ্ণমাটি এলাকার ছয়ঘড়ি পূর্বপাড় মন্দিরের এই ঘটনার সাক্ষী হতে মঙ্গলবার উপচে পড়ে জনতার ভিড়। স্থানীয় বাসিন্দা ও মন্দিরের সেবায়েত এর দাবি, কয়েকদিন ধরেই আচমকাই মায়ের মূর্তির ডান চোখ থেকে জল গড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে।কিন্তু কেন দেবী প্রতিমার চোখ দিয়ে অঝোরে জল ঝরে পরছে? কি কারণ  তার উত্তর খুঁজছেন সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী মঞ্চের প্রতিনিধিরাও। তবে স্থানীয় এক ব্যক্তি সুনীল দাসের  কথায়, ''এলাকার একটি বাড়ি ভেঙে তৈরি হয়েছে ওই মন্দিরটি। সেই কারণেই মায়ের চোখে এই অশ্রুধারা"। 

আরও পড়ুন-'আজকের দিনেই নেতাজি প্রথমবার পোর্টব্লেয়ারে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন', স্মরণে দুই শিবির

এদিকে বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী মঞ্চের প্রতিনিধিদের সদস্যদের প্রাথমিক অনুমান, কোনভাবে দেবীর মূর্তির মুখমণ্ডল ভাগে গ্লিসারিন জাতীয় পদার্থ লাগানো হয়েছে। যে কারণেই অনবরত ও রাতের দিকে বেশি করে তার জলের আকার ধারণ করে চোখ থেকে ঝরে পড়ছে। সব মিলিয়ে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বহরমপুর জুড়ে চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। খতিয়ে দেখা হচ্ছে আশেপাশের সিসিটিভিও।