ভরদুপুরে আচমকাই আকাশ কালো করে ঝড় উঠেছিল। বজ্রাপাতে প্রাণ গেল তিনজনের। গুরুতর আহত আরও একজন। মর্মান্তিক ঘটনাটি মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরে। এলাকায় শোকের ছায়া।

দু'জন তখন কাজ করছিলেন চাষের জমিতে, আর একজন আম কুড়োতে গিয়েছিলেন। মঙ্গলবার দুপুরে হঠাৎ করে যেন আবহাওয়া গেল বদলে! ঝোড়া হাওয়া বইছিল, সঙ্গে ঘন ঘন বজ্রপাত। বজ্রপাতের জেরেই মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরে প্রাণ হারালেন তিনজন।

আরও পড়ুন: কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে বিষধর সাপের ছোবল, পরিযায়ী শ্রমিক ভর্তি হাসপাতালে

মৃতেরা হলেন মিঠু কর্মকার, পিনু ওঁরাও ও সুলতান আহমেদ। মিঠুর বাড়ি হরিশ্চন্দ্রপুরের দক্ষিণ রামনগরে, আর পিনু থাকত পাশে গ্রামে বাইশায়। সুলতান নারায়ণপুর গ্রামের বাসিন্দা। জানা গিয়েছে, দুর্যোগের সময়ে রোজকার মতোই মাঠে কাজ করছিলেন মিঠু ও সুলতান। ঝড়ের মাঝেই বাড়ির কাছে আমবাগানে আম কুড়োতে গিয়েছিলেন পিনু। বাড়ি আর ফেরা হল না কারও। ঘটনার আকস্মিকতায় হতবাক হয়ে গিয়েছিল সকলেই। 

আরও পড়ুন: গ্রাহকের নামে একাধিক 'ভুয়ো রেশন কার্ড', প্রতিবাদ করায় 'প্রাণনাশের হুমকি' বিজেপি নেতাকে

এদিকে আবার বজ্রপাতে কৃষ্ণ সাহা নামে বছর বাইশের এক যুবক গুরুতর আহত হয়েছেন। তাঁর বাড়ি হরিশ্চন্দ্রপুরের রামনগর গ্রামে। ওই যুবককে প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় হরিশ্চন্দ্রপুর হাসপাতালে। পরে রোগীকে স্থানান্তরিত করা হয় চাঁচোল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে।