দুর্গাপুজোর মণ্ডপ তৈরি শুরু হয়েছে আগেই। এখন তাতে কাপড় ঢাকার পালা। কিন্তু হাওয়া অফিসের বার্তায় কপালে ভাঁজ পড়েছে পুজো কমিটির। কারণ গভীর নিম্নচাপের জেরে আগামী ৭২ ঘণ্টায় রাজ্যে প্রবল ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। 

আর প্রায় টেনেটুনে ২৫ দিনের অপেক্ষা। বাঙালির সেরা উৎসব ঘিরে চলছে জোরকদমে প্রস্তুতি। কিন্তু সেই প্রস্তুতি ভেস্তে দিতে পারে বৃষ্টি। পুজোর আগে ফের ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল আলিপুর হাওয়া অফিস। আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, ওড়িশা সংলগ্ন বঙ্গোপসাগরে ক্রমশ ঘনীভূত হচ্ছে একটি নিম্নচাপ। যার কারণে বাংলাতে এই বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে।

তবে বাংলা একা নয়। গভীর নিম্নচাপের জেরে আক্রান্ত হতে পারে প্রতিবেশী রাজ্যে ওড়িশাও। সেখানেও প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তবে স্বস্তির খবর এটাই যে, এক নাগাড়ে বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই রাজ্যে। মাঝে মধ্যে এই বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা। আগামী ৭২ ঘন্টা এই পরিস্থিতি বজায় থাকবে বলে জানাচ্ছেন আবহাওয়াবিদরা। আলিপুর হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস মতে কলকাতা সহ গোটা দক্ষিণবঙ্গেই এই বৃষ্টিপাত চলবে। তবে উত্তরবঙ্গের কয়েকটা জেলাতে ভারী বৃষ্টিপাত হবে বলেই পূর্বাভাস। সেখানে আগামী তিনদিন এই অবস্থা বজায় থাকবে। সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়াও বইতে পারে বলে জানা যাচ্ছে। 
আজ রবিবার থেকেই আবহাওয়া বদলাতে শুরু করবে বলে খবর। দফায় দফায় বৃষ্টিতে ভিজবে রাজ্য। আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, আগামী ৭২ ঘণ্টায় উত্তরবঙ্গের ৫ জেলায় ভারী বৃষ্টি হতে পারে। ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার ও কালিম্পঙে। অন্যদিকে, গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ ও ওড়িশা উপকূলবর্তী এলাকায় ঘণ্টায় ৪৫ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে। যার জেরে আগামী ৪৮ ঘণ্টায় ওই এলাকায় মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।