পুরসভায় পালাবদল ঘটেছে। এবার বিজেপি-র পার্টি অফিস দখল করার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ফের অশান্তি ছড়াল ভাটপাড়ায়। দুই দলের কর্মীদের মধ্যে গণ্ডগোল, চলল বোমাবাজিও।  পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখালেন বিজেপি সমর্থিত শ্রমিক ইউনিয়নের সদস্যরা।

গত সাত জানুয়ারি ভাটপাড়া পুরসভায় আস্থাভোটে বিপুল ব্যবধানে জেতে তৃণমূল। ভোটাভুটির পর পনেরো দিন, মঙ্গলবার পুরসভায় বোর্ড গঠন করেছে রাজ্যের শাসকদল।  বিজেপির দাবি, রাতে জগদ্দলের সুন্দিয়া মোড়ে তাদের একটি পার্টি অফিস দখল করে নিয়েছেন তৃণমূলকর্মীরা। হুমকি দেওয়া হয়েছে স্থানীয় মানুষদের।  শুধু তাই নয়, এলাকারই কয়েকজন যখন প্রতিবাদ করতে যান, তখন পুলিশ নাকি তাঁদের লাঠিচার্জ করে হটিয়ে দেয়! পুলিশের লাঠির আঘাতে শ্রমিক মহল্লার তিনজন বাসিন্দা আহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। 

আরও পড়ুন: থানা থেকেই আগ্নেয়াস্ত্র চুরি, লালগড়ে গ্রেফতার এসআই সহ চার

বুধবার সকালেও একই ঘটনা ঘটে। ভাটপাড়ার রিলায়েন্স জুটমিলে বিজেপি-র শ্রমিক ইউনিয়নের পার্টি অফিসটি তৃণমূল কর্মীরা দখল করার চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ। দুইপক্ষের মধ্যে গন্ডগোল শুরু হয়ে যায়। এলাকায় বোমাবাজি চলে বলেও অভিযোগ।  ঘটনাস্থলে গেলে পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান বিজেপি সমর্থিত শ্রমিক ইউনিয়নের সদস্যরা। এলাকায় যান ভাটপাড়ার বিধায়ক পবন সিং।  পুলিশ ব্যবস্থা না নিলে অনির্দিষ্টকালের জন্য পথ অবরোধ ও থানা ঘেরাও করার হুমকি দিয়েছেন তিনি। ভাটাপাড়ায় তৃণমূল পর্যবেক্ষক দেবজ্যোতি ঘোষের দাবি, 'পার্টিগুলি তৃণমূলেরই ছিল। বিজেপি দখল করেছে।  এখন ওদের বসার লোক নেই, তাই নিজেরাই চাবি দিয়ে যাচ্ছে।'