মিঠু সাহা, শিলিগুড়ি: দলের কর্মসূচি নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন দিনভর। নেতা-মন্ত্রীর সঙ্গে সময় কেটেছে এক মঞ্চে। বাড়িতে ফিরতেই ঘটল বিপত্তি। তৃণমূল কংগ্রেসের দাপুটে শ্রমিক নেতা জানতে পারলেন, তিনি করোনায় আক্রান্ত! ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে শিলিগুড়ি শহরে।

আরও পড়ুন: কে তালিকা করেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার, কনটেইনমেন্ট জোনের লিস্ট দেখে ধমক মুখ্যমন্ত্রীর

শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদে ক্ষমতায় বামেরা। সেখানে বিরোধী দলনেতা তৃণমূলের কাজল ঘোষ। এলাকায় আবার তিনি শাসকদলের দাপুটে শ্রমিক নেতা হিসেবেও পরিচিত। জানা গিয়েছে, দিন দুয়েক আগে নিজে থেকে লালারস বা সোয়াব পরীক্ষা করান কাজলবাবু। কিন্তু রিপোর্ট আসার পর্যন্ত আর অপেক্ষা করেননি। দলের কাজে ঘুরে বেড়িয়েছে শিলিগুড়ির বিভিন্ন প্রান্তে। মঙ্গলবারও যথারীতি এনজেপি স্টেশনে রেলের বেসরকারিকরণের প্রতিবাদে বিক্ষোভে কর্মসূচিতে যোগ তৃণমূল কংগ্রেসের শ্রমিক নেতা কাজল ঘোষ। রাতে যখন বাড়ি ফেরেন, তখনই স্বাস্থ্য দপ্তরে ফোন পান শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের বিরোধী দলনেতা। ফোনে জানানো হয়, লালারস পরীক্ষা করোনা পজিটিভি রিপোর্ট এসেছে। এরপর আর সময় নষ্ট করেননি, নিজেই গাড়ি চালিয়ে নার্সিংহোমে চলে যান কাজলবাবু। তৃণমূলে যেসব নেতা-কর্মী তাঁর সংস্পর্শে এসেছেন, তাঁদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন স্বাস্থ্য দপ্তর

আরও পড়ুন: ফের রেকর্ড করোনা রাজ্য়ে, একদিনে সংক্রামিত ৯৮৬

নিজেই যখন লালারস পরীক্ষা করিয়েছিলেন, তখন রিপোর্ট আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করলেন না? তৃণমূল নেতার আচরণ নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিক মহলে। পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব বলেন, 'শুনেছি, উনি আক্রান্ত হয়েছেন। আমরা একই মঞ্চে ছিলাম। প্রত্যেকের সচেতন হওয়া উচিত।'