লকডাউনের মাঝেই এক রক্তদান শিবিরে যোগ দিতে গিয়েছিলেন তিনি। ফেরার পথে দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম হলেন আরামবাগের তৃণমূল বিধায়ক কৃষ্ণচন্দ্র সাঁতরা।  হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বিধায়ককে।

আরও পড়ুন: 'ধর্ষণ করে খুন', তিনদিন পর মৃতার দেহ শনাক্ত করলেন পরিবারের লোকেরা
 
করোনা সতর্কতায় লকডাউন চলছে রাজ্যে। কিন্তু সংক্রমণকে বাগে যাচ্ছে কই! বরং দিন যাচ্ছে, আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। হাসপাতালে ভিড় বাড়ছে রোগীদের। রাজ্যে ব্লাড ব্যাংকগুলিতে এখন রক্তের আকাল। পরিস্থিতি সামাল দিতে লকডাউনের মাঝেই রক্ত শিবির চলেছে বিভিন্ন জায়গায়। 

আরও পড়ুন: পাত্রীর 'লগ্নভ্রষ্টা' হওয়ার আশঙ্কা, লকডাউনে নমো নমো করে বিয়ে সারলেন যুবক

জানা গিয়েছে, শনিবার এলাকায় একটি রক্তদান শিবিরে যোগ দিতে গিয়েছিলেন হুগলির আরামবাগের তৃণমূল কৃষ্ণচন্দ্র সাঁতরা। তিনি যখন ফিরছিলেন, তখনই ঘটে দুর্ঘটনা। আরামবাগ শহরের গির্জাতলা এলাকায় টার্ন নিতে গিয়ে বিধায়কের গাড়ির সঙ্গে মুখোমুখি ধাক্কা লাগে একটি ম্যাটাডরের। দুর্ঘটনার বাঁ হাত ভেঙেছে কৃষ্ণচন্দ্রের, চোট লেগেছে ডান পায়েও। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় আরামবাগ মহকুমা হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসা চলছে।  কীভাবে দুর্ঘটনা ঘটল? ম্যাটাডর চালকের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ দায়ের করেননি বিধায়ক কৃষ্ণচন্দ্র সাঁতরা। তিনি বলেন, ম্যাডাটর চালকের কোনও দোষ নেই। নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির কারণে দুর্ঘটনা ঘটেছে।