প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে প্রশাসনিক স্তরে, তবে রাজ্যে এখনও পুরভোটের দিনক্ষণ চূড়ান্ত হয়নি। কিন্তু তাতে কি! উত্তর ২৪ পরগণার টাকি পুর এলাকায় দেওয়াল লিখন শুরু করে দিলেন তৃণমূল কাউন্সিলর সুনীল সরদার। তাঁর বক্তব্য, বিরোধীরা প্রার্থী ঠিক করতে গিয়েই হিমশিম খাচ্ছে। টাকি পুরসভার বিপুল ভোটে জিতবে রাজ্যে শাসকদলই।

এ বছর কলকাতা-সহ রাজ্যের ৯৩ পুরসভার মেয়াদ শেষ হচ্ছে।  কিন্তু ভোট কবে হবে? দিনক্ষণ এখনও পর্যন্ত চুড়ান্ত না হলেও, এপ্রিলের মাঝামাঝি পুরভোট হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। দিন কয়েক আগে রাজ্যের ৯৩টি পুরসভার সংরক্ষিত আসনের তালিকা প্রকাশ করেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। এবার কলকাতায় ৮টি ওয়ার্ড তফশিলি জাতি ও উপজাতির মহিলাদের জন্য ও ৪৫টি ওয়ার্ড সাধারণ মহিলাদের জন্য সংরক্ষণের আওতায় থাকছে। ফলে তৃণমূলের কংগ্রেসের বেশ কয়েকটি হেভিওয়েট প্রার্থী আর ভোটে দাঁড়াতে পারবেন না। এদিকে বিধানসভা ভোটের আগে পুরভোটকে যেমন পাখির চোখ করেছে বিজেপি, তেমনি পুরসভায় নিজেদের ক্ষমতায় ধরে রাখতে মরিয়া তৃণমূলও।

আরও পড়ুন: দাবি পূরণ হয়নি, ভোট প্রক্রিয়া বয়কটের হুমকি আদিবাসীদের

উত্তর ২৪ পরগণার বসিরহাটের টাকি পুরসভার এখন ক্ষমতায় তৃণমূল কংগ্রেস। ১৬ ওয়ার্ডের এই পুরসভার ১০টি আসনই রাজ্যের শাসকদলের দখলে, আর বাকি ছয়টি ওয়ার্ডে জিতেছেন বিরোধী দলের প্রার্থীরা। বুধবার সকালে টাকি শহরের ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের স্টেশনপাড়ায় চুন-কালি নিয়ে দেওয়াল লিখন শুরু করে দিলেন স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর সুনীল সরদার।  উল্লেখ্য, টাকি পুরসভার ভোটে কিন্তু এখনও তৃণমূল প্রার্থীদের নাম চূড়ান্ত হয়নি। স্রেফ নীল রং দিয়ে দলের প্রতীক এঁকেই দেওয়াল লিখন সারলেন তৃণমূল কাউন্সিলর।