জুয়ার আসর থেকে গ্রেফতার হলেন এক ডজন তৃণমূল ছাত্র- যুব নেতা। তার মধ্যে আবার রয়েছেন যুব তৃণমূলের ব্লক সভাপতিও। রবিবার গভীর রাতে মুর্শিদাবাদের ডোমকল থেকে এই তৃণমূল নেতাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতদের এ দিন বহরমপুর সিজেএম আদালতে হাজির করানো হলে সাত দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। 

জানা গিয়েছে, রবিবার গভীর রাতে ডোমকলের পুরাতন বিডিও অফিস মোড় লাগোয়া তৃণমুল ছাত্র নেতা টিঙ্কু  শেখের বাড়িতে  জুয়ার আসর বসেছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ডোমকল থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী সেখানে হানা দেয়।আর তার পরেই সেখান থেকে রানিনগর এক নম্বর ব্লক যুব তৃণমুল সভাপতি ইমতেয়াজ কবির শেখ-সহ বারোজন ছাত্র- যুব নেতাকে গ্রেফতার করা হয়। ধৃতদের কাছ থেকে নগদ ৫১ হাজার ৫০০টাকা, তাসের বান্ডিল ও মদের বোতল বাজেয়াপ্ত করা হয়। ঘটনাস্থলে পাওয়া যায় বেশ কয়েকটি বাইকও। এই ঘটনার কথা জানাজানি হতেই এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়।

সোমবার সকালেই ধৃতদের বহরমপুর সিজেএম আদালতে হাজির করানো হয়। তৃণমূল নেতা- কর্মীদের আদালতে হাজির করানোর খবর ছড়িয়ে পড়তেই প্রচুর মানুষ আদালত চত্বরে ভিড় করেন। যদিও এ বিষয়ে জেলা তৃণমুল নেতৃত্বের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে কারও কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। মুর্শিদাবাদ লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমুল সাংসদ তথা জেলা সভাপতি আবু তাহের খানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,'আমি দলীয় কাজে কলকাতায় এসেছি। এ বিষয়ে কিছু জানা নেই। খোঁজ নিয়ে দেখছি।'