উৎসবের দিনেও শিশুকন্যা নির্যাতনের ঘটনা। দ্বিতীয় শ্রেণির নাবালিকা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল নিজের কাকার বিরুদ্ধে। ঘটনার জেরে উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। নির্যাতিতা শিশুর পরিবারে বিষয়টি জানাজানি হতেই অভিযুক্তকে হাতেনাতে ধরা ফেলে স্থানীয়রা।

আরও পড়ুন-ব্য়াট হাতে রাজ্যপাল, ক্রিকেট খেলার মাঠে প্রতিযোগিতায় দিলেন 'লে ছক্কা'

চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুরের বাসুদেবপুর এলাকায়। জানাগেছে, এই এলাকার বিড়ি শ্রমিক পরিবারের ওই নাবালিকা  স্কুলছাত্রী তার বাড়ির পাশেই খেলাধূলা করছিল। অভিযোগ, সেই সময় পেশায় রাজমিস্ত্রি ইন্তাজুল খাবারের  প্রলোভন দেখিয়ে নাবালিকাকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানে নিজের ভাইঝিকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। শুধু তাই নয়, বিষয়টি বাড়ির কাউকে না জানাতেও বলা হয়।  নির্যাতিতা শিশুকন্যার পরিবারের লোকেরা বাড়িতে ফিরে ওই নাবালিকাকে দেখে প্রাথমিকভাবে কিছু জানতে পারেনি। পরবর্তীতে নাবালিকার আচরণ দেখে সন্দেহ হয়। তাকে জিগেস করে গোটা ঘটনা পরিবারকে জানায় ওই নাবালিকা। 

আরও পড়ুন-'বিষ্ণুপুরে শুভেন্দুদার জন্যই জিতেছি', সৌমিত্র খাঁয়ের মন্তব্য়ে নয়া জল্পনা

তারপরই, স্থানীয়রা সকলেই জানতে পেরে ইন্তাজুলকে তার বাড়িতে গিয়ে ধরে ফেলে। খবর দেওয়া হয় পুলিশে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে অভিযুক্ত কাকাকে গ্রেফতার করে। ধৃতের বিরুদ্ধে পসকো আইনে মামলা রুজু করে পুলিশ। অভিযুক্তকে আদালতে তোলা হলে ২০২১-এর ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দেয় আদালত।