Asianet News BanglaAsianet News Bangla

মেলেনি আবাস যোজনার ঘর, ফিরহাদের সভায় যেতে বলায় নেতাদের তাড়া করলেন গ্রামবাসীরা

রবিবার কলিগ্রামে উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার নয়া বাস ডিপো উদ্ধোধনের কথা ছিল। শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতিও শেষ হয়েছিল। আজ চাঁচলের কলেজের মাঠে হেলিপ‍্যাডে হেলিকপ্টারও মহড়া করতে আসে। কিন্তু, তার এক ঘণ্টা পরেই উদ্ধোধনী অনুষ্ঠান বাতিলের কথা ঘোষণা করা হয়।

villagers chased leaders for asking them to go to the meeting of Firhad Hakim bmm
Author
Kolkata, First Published Oct 23, 2021, 5:10 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

রবিবার চাঁচলের কলিগ্রামে উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার (North Bengal State Transport Corporation) নয়া বাস ডিপো (Bus Depot) উদ্ধোধনের কথা ছিল পরিবহণ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের (Firhad Hakim)। রাত পোহালেই চাঁচলের মুকুটে জুটত নতুন পালক। যদিও বিশেষ কারণ দেখিয়ে এই সফর বাতিল করেছেন ফিরহাদ। শনিবার চাঁচলের বিধারক নিহার রঞ্জন ঘোষ একথা জানিয়েছেন। এদিকে এই সভায় ভিড় জমানোর জন্য গ্রামের মানুষের কাছে অনুরোধ করতে গিয়েছিলেন তৃণমূল নেতারা। আর সেখানে গিয়ে রীতিমতো তাড়া খান তাঁরা। 

আগামী কাল অর্থাৎ রবিবার কলিগ্রামে উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার নয়া বাস ডিপো উদ্ধোধনের কথা ছিল। শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতিও শেষ হয়েছিল। আজ চাঁচলের কলেজের মাঠে হেলিপ‍্যাডে হেলিকপ্টারও মহড়া করতে আসে। কিন্তু, তার এক ঘণ্টা পরেই উদ্ধোধনী অনুষ্ঠান বাতিলের কথা ঘোষণা করা হয়। এ প্রসঙ্গে নিহার রঞ্জন ঘোষ জানান, রাজ‍্যে উপনির্বাচন (By Election) ও মুখ‍্যমন্ত্রীর উত্তরবঙ্গ সফর রয়েছে। সেই কারণেই হয়তো ফিরহাদ হাকিম আসতে পারছেন না।

villagers chased leaders for asking them to go to the meeting of Firhad Hakim bmm

এদিকে এই সভা নিয়ে আগে থেকেই শুরু হয়েছিল প্রস্তুতি। সভায় লোক জড়ো করতে রীতিমতো কোমর বেঁধে নেমে পড়েছিলেন তৃণমূল নেতা-কর্মীরা। তবে গ্রামের বাসিন্দাদের সভায় যাওয়ার কথা বলেতেই বাধে বিপত্তি। স্থানীয়দের হাতে হেনস্থার শিকার হতে হয় তাঁদের। নেতাদের ধাক্কা দিয়ে গ্রাম থেকে বের করে দেন স্থানীয়রা। কোনওরকমে ওই এলাকা থেকে পালিয়ে যান তাঁরা। ঘটনাটি মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরের ১ নম্বর ব্লকের হরিচন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার গোলামোড় নব-গ্রামের।

আরও পড়ুন- 'আসবে নতুন ভোর', গোয়া সফর নিয়ে টুইট মমতার

দলের নির্দেশে সভায় ভিড়ের জন্যে লোক নিয়ে আসার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল ব্লক নেতাদের। দুই তৃণমূল নেতা আফসার আলি ও আব্দুল সাত্তার ওই গ্রামে যান। তাঁদের দেখেই তেড়ে যান স্থানীয়রা। গ্রামের বাসিন্দাদের বোঝাতে ব্যর্থ হন দুই নেতা ও তাঁদের সঙ্গীরা। উল্টে তাঁদের ধাক্কা দিয়ে গ্রাম ছাড়া করেন গ্রামবাসীরা।

আরও পড়ুন- সরকারি প্রকল্প নিয়ে সচেতন করতে অভিনব উদ্যোগ, লোকশিল্পীদের দ্বারস্থ প্রশাসন

villagers chased leaders for asking them to go to the meeting of Firhad Hakim bmm

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, ফিরহাদ হাকিমের সভায় তাঁরা যাবেন না। নিয়মিত নেতাদের মিটিংয়ে হাজির হওয়ার জন্য নেতারা বলে যান। যেতেও হয়। ভোটের সময় আরও বেশি। কিন্তু, গ্রামবাসীদের জন্যে কিছু করা হয় না। এমনকী ন্যায্য অধিকার থেকেও বঞ্চিত গ্রামবাসীরা। আবাস যোজনা (Pradhan Mantri Awas Yojana) নিয়ে চরম দুর্নীতি হচ্ছে। ফলে অসহায় মানুষরাই তা থেকে বঞ্চিত হন। নবগ্রাম সহ আশপাশের গ্রামের কেউ আবাস যোজনার সুবিধা পায়নি। বন্যার সময় ত্রাণের টাকাও পায়নি। 

আরও পড়ুন- টিকার ডবল ডোজ নিয়েও কোভিড পজিটিভ কলকাতা পুলিশের ১৩ কর্মী, আক্রান্ত নর্থ ডিভিশনের এক আধিকারিকও

সব থেকে বড় কথা, আফসার আলি ও আব্দুল সাত্তারও গ্রামের বাসিন্দাদের অভিযোগের কথা স্বীকার করে নিয়েছেন। তাঁদের কথায়, তবু বারবার জনসভায় উপস্থিত থাকার জন্য দলের নির্দেশে তাঁদের গ্রামে যেতে হয়। তাই এবার বিক্ষোভ দেখিয়েছেন গ্রামবাসীরা। এদিকে এদিন আগেই সেই সভা বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। ফলে আগামীকাল ওই বাস ডিপো উদ্বোধন করবেন না ফিরহাদ।  

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios