বেহাল অবস্থা বক্সার জঙ্গলের ঝুলন্ত সেতুর, গুজরাটের থেকে কি শিক্ষা নেবে বাংলা?

| Nov 01 2022, 07:43 PM IST

adivasis built bridge

সংক্ষিপ্ত

স্থানীয়দের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে সেতু বেহাল অবস্থায় পরে থাকলেও মেরামতের কোনও উদ্যোগ নেওয়া হয়নি বনদফতরের তরফে। ব্যাঘ্র প্রকল্পের তরফে জানান হয়, সেতুটির বিষয়ে রাজ্য সরকারকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

গুজরাটের আতঙ্ক তারা করছে বক্সার জঙ্গলেও। বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের ছিপড়া বিটের জঙ্গলে ধওলা নদীর উপর রয়েছে জরাজীর্ণ ঝুলন্ত এক সেতু। এই সেতুর উপর দিয়েই রোজকার যাতায়াত। শুধু তাই নয় বক্সার জঙ্গলে পর্যটকদের কাছে এই সেতুই আকর্ষণের কেন্দ্র। ধওলা নদীর উপর দিয়ে যাতায়াতের জন্য এই পথই বেছে নেন পর্যটক থেকে স্থানীয়রা।

কিন্তু রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে বেহাল দশা এই সেতুর। অথচ ছিপড়া বিটের বনকর্মী এবং রাভা বস্তির বাসিন্দাদের যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা এই সেতুই। ফলে প্রাণ হাতে নিয়েই যাতায়াত করতে হয় বনকর্মী থেকে সাধারণ মানুষদের। একমসয় একটি স্থায়ী কাঠের সেতু থাকলেও ১৯৯৩ সালে বন্যায় ভেঙে যায় সেই সেতু। তারপর বিকল্প হিসেবে এই ঝুলন্ত সেতু তৈরি হলেও হয়েনি কোনও রক্ষণাবেক্ষণ।

Subscribe to get breaking news alerts

স্থানীয়দের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে সেতু বেহাল অবস্থায় পরে থাকলেও মেরামতের কোনও উদ্যোগ নেওয়া হয়নি বনদফতরের তরফে। ব্যাঘ্র প্রকল্পের তরফে জানান হয়, সেতুটির বিষয়ে রাজ্য সরকারকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত,রবিবার সন্ধ্যায় প্রায় ৫০০ জন পর্যটক-সহ গুজরাটের মাচু নদীর উপর ভেঙে পড়ল ঝুলন্ত সেতু। ঘটনায় সলিল সমাধি কমপক্ষে ৯০ জনের। নিখোঁজ শতাধিক। ক্রমেই বাড়ছে হতাহতের সংখ্যা। উল্লেখ্য,মেরামতির জন্য দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল এই সেতু। দীর্ঘ রক্ষণাবেক্ষণের পর গত ২৬ অক্টোবর সেতুটি জনসাধারণের ব্যবহারের জন্য খুলে দেওয়া হয়। কিন্তু উদ্বোধনের মাত্র তিনদিনের মাথায়ই ঘটল মর্মান্তিক দুর্ঘটনা।

ঘটনার পরই গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র পটেল টুইট করে জানিয়েছেন, উদ্ধারকাজে গতি আনার পাশাপাশি একাধিক নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয় থেকে প্রকাশিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য করার জন্য এবং পরিস্থিতির দিকে সজাগ নজর রাখার জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই ক্ষতিগ্রস্তদের ৫০ হাজার টাকা করে আর্থিক সাহায্যেরও ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

আহতদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে একটি টুইট করেন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র পটেল। টুইটে তিনি লিখেছে। এই ঘটনায় তিনি মর্মাহত এবং আহতদের চিকিৎসা এবং নিখোঁজ ব্যক্তিদের উদ্ধারকাজে গতি আনতে জেলা প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন মুখ্যমন্ত্রী।

 

আরও পড়ুন - 

‘সামনে চলছে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ, পেছনে চলছে পুতিনকে পদচ্যুত করার ফন্দি’, ফাঁস করল ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা দফতর 

পুলওয়ামা হামলা উদযাপন করে সেনাবাহিনীকে ব্যঙ্গ, মুসলিম ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্রের পাঁচ বছরের সাজা