Asianet News BanglaAsianet News Bangla

পাইলট কার সহ এসি গাড়িতে পার্থ আর সামান্য প্রিজন ভ্যানে অর্পিতা!

একই মামলায় পার্থ এবং অর্পিতাকে আজ পেশ করা হয় কলকাতা হাইকোর্টে। তবে জেল থেকে আদালতে নিয়ে যাওয়া এবং ফের ফিরিয়ে নিয়ে আসার সময় দুই অপরাধীর ক্ষেত্রে দেখা গেল ২ রকমের ভিন্ন নিয়ম।

West Bengal SSC Scam Partha Chatterjee in AC car and Arpita Mukherjee in Prison Van ANBSS
Author
First Published Aug 19, 2022, 10:36 AM IST

পশ্চিমবঙ্গের এসএসসিতে শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে ইডির হাতে গ্রেফতার রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তাঁর ‘ঘনিষ্ঠ’ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। দুজনেই বর্তমানে প্রেসিডেন্সি জেলের অন্দরে বন্দি। একই মামলায় দুই অভিযুক্তকে আজ পেশ করা হয় কলকাতা হাইকোর্টে। তবে জেল থেকে আদালতে নিয়ে যাওয়া এবং ফের ফিরিয়ে নিয়ে আসার সময় দুই অপরাধীর ক্ষেত্রে দেখা গেল ২ রকমের ভিন্ন নিয়ম। 

দেখা যায় প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের যাতায়াতের উদ্দেশ্যে বন্দোবস্ত করা রয়েছে কালো কাচে ঘেরা এসি গাড়ির। তার সঙ্গে আবার কঠোর নিরাপত্তার উদ্দেশ্যে রয়েছে পাইলট কারও। কিন্তু, ওই একই মামলায় অভিযুক্ত হয়েও তাঁর বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের জন্য উপস্থিত ছিল জেলের অতীব সাধারণ প্রিজন ভ্যান। দুজনেই অপরাধী হিসেবে গণ্য হলে কেন প্রশাসনের তরফ থেকে এই ভেদাভেদ? এই নিয়ে শুরু হয়েছে জোর চর্চা।

প্রসঙ্গত, ইডির তত্ত্বাবধানে ১৪ দিনের জেল হেফাজত শেষের পর  বৃহস্পতিবার আদালতে পেশ করা হয় পার্থ এবং অর্পিতাকে। কলকাতা হাইকোর্টে ইডির আইনজীবী দাবি করেন, পার্থ চট্টোপাধ্যায় তদন্তে সহযোগিতা করেননি। অর্পিতার ফ্ল্যাট থেকে বিপুল অর্থের উৎস সম্পর্কেও মুখ খোলেননি। সূত্রের খবর, পার্থর সঙ্গে যৌথ সম্পত্তির কথা জানিয়েছেন অর্পিতা। বুধবার জেলের ভিতরে এই সমস্ত বিষয় নিয়ে পার্থকে বহু প্রশ্ন করে ইডি। জিজ্ঞাসাবাদ করার পর, তাঁর ফোন থেকে জীবন বিমা সংক্রান্ত তথ্য পাওয়ার কথা প্রাক্তন মন্ত্রীকে জানান সরকারি আধিকারিকরা। দীর্ঘক্ষণ ধরে তাঁকে ম্যারাথন জেরা করার পর একটি বয়ানের কাগজ সই করাতে গেলে পার্থ নাকি সেটা তৎক্ষণাৎ ছিঁড়ে ফেলে দেন। 

ইডির আধিকারিকরা জানিয়েছেন, পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ফোন বাজেয়াপ্ত করার পর দেখা যায় অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের নামে করা রয়েছে প্রায় ৩১টি জীবন বিমা, সবকটি জীবন বিমায় নমিনি হিসাবে রয়েছে প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নাম। শুধু তা-ই নয়, পার্থর হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ ঘেঁটে দেখা গিয়েছে, অর্পিতার বিমা সংক্রান্ত মেসেজও রয়েছে তাঁর ফোনে। অর্পিতার LIC-র প্রিমিয়াম পার্থর অ্যাকাউন্ট থেকে যেত, একটি শৃঙ্খলাবদ্ধ পদ্ধতিতে কালো টাকাগুলি সাদা করা হত। এমনকী, জীবন বিমার কাগজপত্রে যোগাযোগের ফোন নম্বর হিসাবে পার্থর ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরও দেওয়া রয়েছে বলে দাবি তুলেছেন ইডির আইনজীবী।

আরও পড়ুন-
'কেউ ছাড় পাবে না' হাত জোর করে বললেন পার্থ, কালো টাকা দিয়ে স্কুল, আদালতে দাবি ইডির
অর্পিতার পর পার্থকে জেরা, বুধবার সকাল ১১টায় প্রেসিডেন্সি জেলে যাচ্ছে ED - বলছে সূত্র

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios