মৌলিককান্তি মণ্ডল, নদিয়া: শারীরিক অসুস্থতার কারণে কি আত্মহত্যা করলেন? পাটক্ষেত থেকে উদ্ধার হল এক মহিলার দেহ। রাতভর নিখোঁজ ছিলেন তিনি। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে নদিয়ার নবদ্বীপে। মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখান, বাড়িতে ঢুকে ছাত্রীকে কুপিয়ে খুন পড়শি যুবকের

মৃতার নাম আরতি দাস। বাড়ি, নবদ্বীপের নিত্যানন্দপুরের হুড়েরমুখ এলাকায়। স্বামী, ছেলে ও ছেলের বউ নিয়ে ভরা সংসার। স্বামী শম্ভু দাস জমিতে চাষাবাদ করেন। পরিবারের আর্থিক অবস্থা একেবারেই ভালো নয়। বাড়ির লোকেরা জানিয়েছেন, রবিবার দুপুর আচমকাই উধাও হয়ে যান আরতি। রাত পর্যন্ত অনেক খোঁজাখুজিও করে আর সন্ধান মেলেনি। সোমবার সকালে পরিচিত এক ব্যক্তি ফোন করে জানান, গ্রামের পাটক্ষেতে পড়ে রয়েছেন ওই মহিলা।  খবর পাওয়ার পর যখন তাঁকে নবদ্বীপ স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, ততক্ষণে  সব শেষ। হাসপাতালে আরতি দাসকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

আরও পড়ুন: লাভপুরে খুন তৃণমূলের প্রাক্তন পঞ্চায়েত সদস্য, চাষের জমিতে মিলল নলি কাটা দেহ

কীভাবে এই ঘটনা ঘটল? পরিবারের লোকের জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরেই নানা ধরণের শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন আরতি। মানসিকভাবেও খুব একটা সুস্থ ছিলেন না। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, রোগভোগের কারণে মানসিক অবসাদে কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। ঘটনার তদন্তে নেমেছে নবদ্বীপ থানার পুলিশ।