যখন সবাই অবসর জীবন যাপন করেন তখন কেন তিনি রাজনীতি এলেন? গত ২৫ ফেব্রিয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকে এই কথা প্রায়ই শুনতে হত তাঁকে। রবিবার কেরলের একটি জনসভা থেকে সেই সব প্রশ্নের উত্তর দিলের কেরলের বিজেপি প্রার্থী ইলাতুওয়ালাপিল শ্রীধরণ, মেট্রো ম্যান হিসেবেই পরিচিত তিনি।  স্পষ্ট কথায় তিনি জানিয়েছেন উন্নয়নমূলক কাজ করার ইচ্ছে থেকেই রাজনীতিতে এসেছেন তিনি। তিনি আরও বলেন বয়স ৮৮ হলেও তিনি কাজ করা ইচ্ছে তাঁর রয়েছে। 

সংবাদ সংস্থা এনএনআই এর প্রতিবেদন অনুযায়ী শ্রীধরণ জানিয়েছেন, জীবনে অনেক প্রকল্পে কাজ করেছেন। এই বয়সে এসেই কাজ করা ইচ্ছে আর শক্তি দুটোই তাঁর রয়েছে। তাঁর কাজের ইচ্ছেকে কেরলের উন্নয়েনে ব্যবহার করতে চান। আর সেই কারণেই তিনি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। তিনি আরও বলেন তিনি মানসিকভাবে তিনি অত্যন্ত সক্ষম। 

রাজনীতিতে আসার পর থেকে থেকেই তাঁর বয়স নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়েছিল। কিন্তু তিনি নিজের সিদ্ধান্তের বিষয়ে অনড় ছিলেন। তিনি বলেছিলেন মানসিকভাবে তিনি খুবই সচেতন। এক জন তরুণের মতই তিনি চিন্তাভাবনা করতে পারেন। তিনি আরও বলেছিলেন তাঁর স্বাস্থ্য নিয়ে বর্তমানে কোনও সমস্যা নেই। আগামী দিনে তাঁর স্বাস্থ্য কোনও বাধা হয়ে দাঁড়াবে না জানিয়ে তিনি বলেছিলেন তিনি সাধারণ রাজনীতিবিদের মত কাজ করবেন না। পুরো ব্যবস্থাটাই যান্ত্রিক উপায়ে নিয়ন্ত্রণ করবেন। 

দেশের পাব্লিক ট্রান্সপোর্ট সিস্টেমকে উন্নত করায় বিশেষ অবদান রয়েছে শ্রীধরনের। কলকাতা ও দিল্লি মের্টো স্থাপনের ক্ষেত্রেও বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন তিনি। বেশ কয়েকটি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পুরষ্কারও পেয়েছেন তিনি। আর সেই কারণেই মেট্রো ম্যান হিসেবে তঁর পরিচিতি। কেরলের বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে মেট্রোম্যানে  কাজের দিক গুলি তুলে ধরছে বিজেপি। তাঁকে সামনে রেখে বিজেপি স্লোগান তুলেছে নতুন কেরল কার্যকর ও দক্ষ রাজ্যসরকার গঠনে বিশেষ ভিত্তি তৈরি করবে মেট্রো ম্যান।