Asianet News Bangla

'ওর চলে যাওয়াটা মেনে নিতে পারছি না', শোকাহত মাধবী মুখোপাধ্যায়

  • তাপস পালের মৃত্যুর রেশ কাটতে না কাটতেই প্রয়াত সন্তু মুখোপাধ্যায়
  • কেউই যেন তার মৃত্যুকে মেনে নিতে পারছেন না
  • তার এই প্রয়াণে গভীর ভাবে শোকাহত মাধবী মুখোপাধ্যায়
  • কোনওভাবেই যেন তার মৃত্যুকে মেনে নিতে পারছেন না অভিনেত্রী মাধবী 
Madhabi Mukherjee mourns of santu Mukherjee death
Author
Kolkata, First Published Mar 12, 2020, 10:01 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

দীর্ঘদিন ধরে গুরুতর অসুস্থ ছিলেন সন্তু মুখোপাধ্যায়। চলতি মাসের ৪ ফেব্রুয়ারি তার শারীরিক অবস্থার পতন হওয়ার  তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গতকালই নিজের গল্ফগ্রিনের বাড়িতে সন্ধ্যে ৭.৩০ নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। বেশ কিছুদিন ধরেই দুরারোগ্য মারণ ব্যাধি  ক্যান্সারে  আক্রান্ত ছিলেন অভিনেতা। মৃত্যুকাল তার বয়স হয়েছিল ৬৯ বছর। তার এই অকাল প্রয়ানে গভীর ছায়া নেমে এসেছে টলিউডে।টলিপাড়ার ফের নক্ষত্রপতন। মাত্র কিছুদিন আগেই প্রয়াত হলেন  অভিনেতা তথা প্রাক্তন সাংসদ তাপস পাল। সেই বিষাদের রেশ কাটতে না কাটতে চলে গেলেন সন্তু মুখোপাধ্যায়। একের পর  এক নক্ষত্ররা এভাবেই ছেড়ে চলে যাচ্ছেন টলি ইন্ডাস্ট্রিকে। কেউই যেন তার মৃত্যুকে মেনে নিতে পারছেন না। 

আরও পড়ুন-'সত্যজিৎ রায়ে কাছে নিয়ে গিয়েছিলাম', সন্তু মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে শোকাহত সৌমিত্র...

দীর্ঘদিন ধরে তার সঙ্গে কাজ করেছেন অভিনেত্রী মাধবী মুখোপাধ্যায়। তার এই প্রয়াণে গভীর ভাবে শোকাহত মাধবী মুখোপাধ্যায়। তিনি জানিয়েছেন,  'দীর্ঘদিন ধরে আমরা একসঙ্গে কাজ করেছি। 'মালঞ্চ'ছবিতে তার সঙ্গে কাজ করেছিলাম।  মন খারাপ, আনন্দ, ভাল সময় সব কিছুই একসঙ্গে কাটিয়েছি আমরা। তারপর শেষ জীবনেও আমরা অনেকগুলো সিরিয়ালেও একসঙ্গে কাজ করেছি। তারপর একদিন শুনলাম ও আর কাজ করছে না। ওকে অনেকবার ফোন করলাম ফোন ধরল নায তারপর মেয়েকে ফোন করে জানতে পারলাম ও কোথায় আছে। আমি ওর সঙ্গে দেখা করতে যাব ভাবছ আর ঠিক সেসময়েই ওর চলে যাওয়ার খবর পেলাম। খবরটা শুনে মনটা খুবই ভারাক্রান্ত। মেনে নিতে পারছি না ওর চলে যাওয়াটা।'.

আরও পড়ুন-'শেষ সময় এক সঙ্গে অনেক কাজ করেছি,' সন্তু মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যুতে ভেঙে পড়লেন সাবিত্রী...

সালটা  ১৯৭৫। তপন সিংয়ের  'রাজা ' ছবি দিয়েই বড় পর্দায় প্রথম কাজ করা। মাত্র ২৪ বছর বয়সেই কেরিয়ার শুরু করেছিলেন অভিনেতা। তারপর থেকে তাকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। তারপর একে একে তরুণ মজুমদার, হরনাথ চক্রবর্তী প্রমুখ পরিচালকের সঙ্গে চুটিয়ে কাজ করেছেন সন্তু মুখোপাধ্যায়। 'সংসার সীমান্তে', 'হারমোনিয়াম', 'গণদেবতা','দেবদাস', 'ব্যাপিকা বিদায়', 'ভালোবাসা ভালোবাসা'-র মতো একাধিক ভাল ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। তবে শুধু বড়পর্দায় নয়, বড়পর্দার পাশাপাশি মঞ্চ, যাত্রা, সবক্ষেত্রেই নিজের অভিনয়ের ছাপ রেখে গেছেন। এমনকী ধারবাহিকেও তার অভিনয় মুগ্ধ করেছিল সকলকে। সম্প্রতি 'নক্সি কাঁথা' ধারাবাহিকে অভিনয় করছিলেন অভিনেতা। আর দেখা যাবে না কোনদিনও তাকেয শুধু স্মৃতির মনিকোঠায় অমলিন হয়ে থেকে যাবে তার ছবি। 

আরও পড়ুন-ফের নক্ষত্রপতন, রইল প্রবীন অভিনেতা সন্তু মুখোপাধ্যায়ের জীবনের অজানা কিছু কথা...

বাংলা সিনেমার স্বর্ণযুগের নায়ক উত্তম কুমার,  সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় কার সঙ্গে না অভিনয় করেছেন তিনি । তার সাধাসিধে আটপৌরে অনাড়ম্বর অভিনয় নজর কেড়ে নেয় আমজনতার।  তার অভিনয়ের দক্ষতা নজর কেড়েছিল চিত্র পরিচালকদের। যার  ফলে তরুণ মজুমদার, অরবিন্দ মুখোপাধ্যায় এর মতো পরিচালকরাও তাদের ছবিতে অভিনয় করিয়েছিলেন সন্তুকে দিয়ে। ২০১৩ সাল পর্যন্ত বাংলা সিনেমায় চুটিয়ে অভিনয় করে গেছেন সন্তু মুখোপাধ্যায়। তারপর থেকে টিভি সিরিয়ালেও জনপ্রিয় মুখ হয়ে ওঠেন তিনি । বেশ দাপটের সঙ্গেই জনপ্রিয় টিভি সিরিয়ালে দেখা গিয়েছে অভিনেতাকে। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios