সারা দেশ জুড়ে করোনা আতঙ্কে নাজেহাল বিশ্ববাসী। একের পর এক শহরে মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ছে এই রোগ। এই পরিস্থিতিতে বাঁচার একটাই রাস্তা হোম আইসোলেশন। করোনা থেকে নিজেকে আটকাতে আপাতত সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, এবং একা থাকাই সবথেকে বেস্ট অপশন। সারা বিশ্বে লকডাউনের ব্যবস্থা নিয়েছে সরকার। এই লকডাউন চলাকালীন সকলেই ঘরবন্দি।গৃহবন্দি অবস্থায় প্রত্যেকেই কিছু কিছু করে টাইম পাস করছেন আর সেই সমস্ত ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করছেন।

আরও পড়ুন-রণবীরকে বিয়ে করলেই শেষ হয়ে যাবে ফিল্মি কেরিয়ার, আলিয়াকে পরামর্শ করণ-এর...

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ফেসবুক লাইভে করোনা মেকাবিলায় সচেতনতার বার্তা নিয়ে হাজির হয়েছেন তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেত্রী  নুসরাত জাহান। সকলে যাতে এই মহাসংকট থেকে খুব তাড়াতাড়ি সেরে উঠতে পারে সেই বার্তাই দিয়েছেন অভিনেত্রী। শুধু তাই নয়, খুব তাড়াতাড়ি যেন সকলে আবার স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে ফিরে যেতে পারে তারই কামনা করেছেন অভিনেত্রী। সকলকে সুস্থ থাকার, ভাল থাকার পরামর্শও দিয়েছেন নুসরত। দেখে নিন ভিডিওটি।

 
Posted by Nusrat Jahan on Thursday, April 9, 2020

 

এই লাইভটিতে অভিনেত্রী জানিয়েছেন, লোহার মতোনই যেন সকলের মনটা শক্ত হয়। সেই অদম্য শক্তি নিয়ে সকলকে চলতে হবে। কিছুদিন আগেই লকডাউনের মধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের পর এবার তৃণমূল নেত্রী নুসরাত জাহান কে দেখা গেছিল বাজারে এসে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে।  নিজের পাড়া চেতলা ৮২ নম্বর ওয়ার্ডের সি আইটি  বাজারে এসে সাধারণ মানুষকে তিনি দেখিয়েছিলেন কতটা দূরত্ব বজায় রেখে বাজার করবেন । ক্রেতাদেরও বললেন কতটা দূর থেকে বিক্রেতাদের কাছ থেকে মাল নেবেন। প্রায় আধ ঘন্টা মত পুরো বাজার ঘুরে দেখে সচেতনতার বার্তা দিয়েছিলেন নুসরাত জাহান। সবাই যাতে একসঙ্গে বেশি জিনিস কিনে ঘরে মজুত না করে, তার জন্য আবেদনও জানান সাংসদ। প্রত্যেকেই যেন দূরত্ব বজায় রাখে তারও আবেদন জানান অভিনেত্রী। ঘরবন্দি অবস্থায় হতাশ না হয়ে বাড়ির বিভিন্ন কাজ করতে এবং নিজেদের পছন্দের কাজ করারও পরামর্শ দেন অভিনেত্রী। উল্লেখ্য হোম কোয়ারেন্টাইনে তিনি কীভাবে সময় কাটাচ্ছেন তাও ফ্যানেদের সঙ্গে শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী।

আরও পড়ুন-করোনাভাইরাস ঠেকাতে এবার 'অপারেশন শিল্ড', কোমর বেঁধে নামলেন কেজরিওয়াল...

আরও পড়ুন-ভারতে প্রথম করোনা-যোদ্ধার মৃত্যু, চলে গেলেন বিনা পয়সায় রোগী দেখা চিকিৎসক...

আরও পড়ুন-মায়ের মৃত্যুতেও কর্তব্যে স্থির, শেষ দেখা না দেখে অভাবীদের খাওয়াতে ছুটলেন এই লকডাউন হিরো...