বিয়ের জন্য নির্দিষ্ট দিনে শপথে উপস্থিত থাকতে পারেননি বসিরহাট কেন্দ্রের সাংসদ নুসরত জাহান। বন্ধুর বিয়েতে উপস্থিত থাকার জন্য মিমি চক্রবর্তীও শপথে অংশ নিতে পারেননি। তাই সোমবার রাতেই নিখিল জৈনের সঙ্গে দিল্লি পাড়ি দিয়েছিলেন নুসরত। আজ মঙ্গলবার মিমি নুসরত দুজনেই শপথ নিলেন।

শপথ থেকে ফিরেই বসিরহাট যাবেন বলে জানিয়েছেন নুসরত। খুব সম্ভবত ২৭ জুন ও ২৮ জুন বসিরহাটে যাবেন নববধূ। তুরষ্ক থেকে ফিরে সংবাদমাধ্যমের কাছে সন্দেশখালি প্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে নুসরত বলেন, সন্দেশখালি শান্ত রয়েছে। দলের লোকজন এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রেখেছেন। আমিও প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে সব কিছু নিয়ন্ত্রণে রেখেছি। 

আলিপুরের ফ্ল্যাটে নিখিলের সঙ্গে শিফট করে গিয়েছেন নুসরত জাহান। নায়িকা জানান, তাঁকে প্যাম্পার করার জন্য কিছু বাকি রাখছেন না নিখিল। নুসরতের কথায়, আমার বর আমায় সারাক্ষণ প্রশংসা করছে। ও আমার সঙ্গে এমন ব্যবহার করে, যেন আমি রাজকুমারী। আমরা পরস্পরকে এনজে বলে ডাকি। বিয়ে পুরোপুরি ভাবেই সম্পূর্ণ আলাদা একটি অনুভূতি। আমার মনে হচ্ছে আমি কোনও রূপকথার দুনিয়ায় বাস করছি। 

আলিপুরের নতুন বাসাও নিজে হাতে সুন্দর করে সাজিয়েছেন নুসরত নিখিল। সঙ্গ দিয়েছেন তাঁর ননদরা। তুরষ্ক থেকে ফিরে মাডো়য়ারি মতেও বেশ কিছু রীতিতে অংশ নিয়েছেন নুসরত ও নিখিল। আত্মীয়রাও ছিলেন সঙ্গে। বুধবার দিল্লি থেকে কলকাতায় ফিরবেন নুসরত ও  নিখিল।