কথা দিয়েছিলেন পাশে থাকবেন, সেই কথা অক্ষরে অক্ষরে পালন করছেন রাজ চক্রবর্তী। ভোটের আগে রাজনীতিবিদরা এমন অনেক কথাই বলে থাকেন, যার বাস্তবে কোনও প্রতিচ্ছবি মানুষ দেখতে পায় না। তবে ব্যতিক্রমী থাকনে অনেকেই। যাাঁর সত্যি মানুষের পাশে থেকে মানুষের জন্য কাজ করার চেষ্টা করেন। সেই তালিকাতেই নাম লিখিয়েছেন রাজ চক্রবর্তী। নির্বাচনের আগে জানিয়েছিলেন তিনি সাধ্যমত পাশে থাকবেন। 

আরও পড়ুন- প্রকাশ্যে একাধিক ক্লিপিং, নিয়ম অমান্য করেই ধারাবাহিকের শ্যুট চলছে হোটেলে, ভাড়া বাড়িতে, অভিযোগ  

রাজ চক্রবর্তী ঠিক যেমনটা বলেছিলেন, সাধারণ মানুষের পাশে থেকে ঠিক তেমনটাই করছেন। তাই এলাকা বাসীরাও বেজায় খুশি বিধায়ক হিসেবে রাজকে পেয়ে। প্রথম থেকেই রাজ চক্রবর্তী জানিয়েছিলেন, তিনি ব্যারাকপুরে জিতেই গিয়েছেন, প্রচার নয়, তিনি বিজয় মিছিল করতেন সাধারণ মানুষের মাঝে। ভোটের রেজাল্টের দিনই তা প্রমাণ হয়ে গিয়েছিল। তবে রাজের এই উদ্যোগ প্রতিটা মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ছে। আর বিধায়কের এই মানবিক রূপ দেখেই এবার সাহায্য চাইলেন এক দম্পতি। লিখলেন- লকডাউনে তিনি ও তাঁর স্বামী দুজনেই চাকরি হারিয়েছেন। 

 

 

পাশাপাশি রয়েছে খরচ, বাড়ি ভাড়া, শ্যামনগর থেকে এই আর্জি পৌঁছয় রাজের কাছে। মুহূর্তে তিনি জানান, সেখানকার বিধায়কের সঙ্গে তিনি কথা বলবেন এই নিয়ে। তিনি খুব ভালো মানুষ, কাজ করেন মানুষের জন্য, এই পোস্ট করা মাত্রই যেন বাংলার সোনু সুদ হয়ে ওঠা। মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়তে থাকে পোস্ট। মানুষ নিজেদের সমস্যার কথা পৌঁছে দিতে থাকেন তাঁর কাছে।