এনআরএস কাণ্ডের প্রতিবাদে সারা রাজ্য জুড়ে চলছে চিকিৎসকদের আন্দোলন। বহু ডাক্তার ইতিমধ্যেই ইস্তফা দিয়েছেন।। সারা রাজ্য জুড়েই এনআরএস কাণ্ডের তীব্র নিন্দা চলছে। কর্মবিরতির জেরে বহু রোগীও পরিষেবা পাচ্ছেন না। তারকারাও এই ঘটনা নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। 

এই ঘটনায় রুদ্রনীল ঘোষ ফেসবুকে পোস্ট করে লেখেন, পরিষেবা দেওয়াটা যদি ডাক্তারের ডিউটি হয়, তবেসুরক্ষা দেওয়াটাও প্রশাসনের ডিউটি! 

বীর দাস টুইট করেন, চিকিৎসকরা ভাল মানুষ। রাজনীতিকরা নয়। খুব সহজ বিষয়। কারোর যদি এ বিষয়ে দ্বিমত থাকে, তা হলে তিনি ডাক্তার দেখান। 

অভিনেত্রী রেচেল হোয়াইট টুইট করেন, রোগীরা পরিষেবা চেয়ে পাচ্ছেন না তাই চিকিৎসকদের আচরণকে অসংবেদনশীল বলা হচ্ছে। কিন্তু কারণ সেটা নয়। কারণ হল সীমিত পরিকাঠামো ও রিসোর্সের মধ্যে তাঁদের কাজ করে আসতে হয়েছে এতদিন। 

সুদীপা চট্টোপাধ্যায় টুইট করেছেন, আমরা সবাই অপেক্ষা করে চেয়ে আছি বিকেল ৫টার মিটিং-এর দিকে। ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করবন, যেন ডাক্তারদের সমস্যার দ্রুত সমাধান বেরিয়ে আসে। কথায় আছে,ঈশ্বর আমাদের ঠিক করতে আসেন না। চাই ঈশ্বরই চিকিৎসকদের সৃষ্টি করেছেন। 

নায়িকা শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় পরিবহ মুখোপাধ্যায় ও সাগরদত্ত হাসপাতালে মৃত শিশু কোলে বাবার কান্নার ছবি পোস্ট করেন। সঙ্গে লেখেন, ডাক্তারদের আমি মন থেকে পূর্ণ সমর্থন জানাচ্ছি। আবার এই পাশের ছবিটা দেখে মন হুহু করে উঠছে। কোথা থেকে আসছে এত হিংসা, এত রাগ, যার জন্য নির্দোষরা শাস্তি পাচ্ছেন। মানুষ জাতকে উচ্চতর ভাবা হয়। সত্যি কি আমরা তাই! 

প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্য়ায় টুইট করেন, রোগীদের প্রাণ বাঁচানো যেমন ডাক্তারদের কর্তব্য, ঠিক তেমনই আমাদের সকলের কর্তব্য এই অব্যবস্থার বিরুদ্ধে তাঁদের সকলের পাশে দাঁড়ানো। আমি চাই সুস্থ স্বাস্থ্য পরিষেবা তাড়াতাড়ি ফিরে আসুক। হিংসা নয় আমার কলকাতা শান্তির শহর। সবাই মিলে আমরা মানুষের পাশে দাঁড়াই আর রক্ষা করি তাদের প্রাণ।