উইন্ডোজ প্রোডাকশনের ছবি 'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মোটি'  আজই মুক্তি পেল প্রেক্ষাগৃহে। ছবিতে অভিনয় করতে দেখা যাবে টলি ইন্ডাস্ট্রির প্রথম সারির অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তীকে। মেয়েরা আজও অশুচি। পিরিয়ডটা বিষয়টা আজও যেন লুকোছাপা হয়েই রয়ে গেছে। রাস্তাঘাটে যখন তখন বিপদে পড়তে হয় মেয়েদের। আর তারপর দোকানে গিয়ে প্যাড কেনাটা যেন আরও বড় ঝক্কির ব্যাপার। আর সেই সমস্যা থেকে মেয়েদের মুক্তি দিতে নয়া উদ্যোগ নিয়েছেন ঋতাভরী চক্রবর্তী।  শহরে বিপ্লব ঘটানোর শপথ নিয়েছেন অভিনেত্রী। তবে তিনি একা নন, সঙ্গে রয়েছেন কলকাতার প্যাডম্যান শোভন মুখোপাধ্যায় ও রাহুল দাশগুপ্ত।

আরও পড়ুন-একবৃষ্টি ভেজা দিনে আমিরের চুম্বন, আজও ভুলতে পারেননি করিশ্মা...

কলকাতার সমস্ত পাবলিক টয়লেটে বসতে চলেছে ন্যাপকিন ভেন্ডিং মেশিন।  তাদের একটাই লক্ষ, একটাই উদ্দেশ্য কলকাতার সমস্ত পাবলিক টয়লেটে যেন এই সুবিধা থাকে। নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে এই খবরটি নিজেই জানিয়েছেন অভিনেত্রী। আগামী জুন মাসের মধ্যেই পুরো কাজ সম্পূর্ণ করবেন তার। কলকাতাকেই দেশের প্রথম শহর হিসেবে গড়ে তুলবেন যেখানে সব জায়গায় এই সুবিধা পাওয়া যাবে। শোভনকে অনেকেই চেনেন, কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় এই মেশিন বসিয়েছেন শোভন। মাত্র ২ টাকা দিলেন বেরিয়ে আসে ন্যাপকিন।

 

 

পুরোহিত  তো অনেক দেখেছেন কিন্তু মহিলা পুরোহিত দেখেছেন কি। পিঁড়িতে বসে রয়েছেন বর কনে। আর  পুরোহিত হয়ে সেই যুবক-যুবতীর বিয়ে দিচ্ছেন টলি অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী। অনেকেই হয়তো অবাক হচ্ছেন। ভাবছেন যে ভুল শুনছেন। কিন্তু ভুল নয়, একদমই ঠিকই শুনছেন। মহিলা পুরোহিত হয়ে যেমন বিয়ে দেবেন তেমনি আবার পুজোও দেবেন অভিনেত্রী। বাংলা  ছবিতে প্রথমবার দেখা যাবে সোহম মজুমদারকে। এর আগে বলিউডে 'কবির সিং' ছবিতে শাহিদ কাপুরের বন্ধুর চরিত্রে দেখা গিয়েছে সোহম। ছবির সংগীত পরিচালনা করেছেন অনিন্দ চট্টোপাধ্যায়। 

আরও পড়ুন-তাহিরের পাশে দাঁড়াতেই বিপত্তি, মামলা দায়ের হল জাভেদ আখতারের বিরুদ্ধে...

অরিত্র মুখোপাধ্যায় পরিচালিত এই ছবিতে এক বাঙালি গৃহিনীর চরিত্রে দেখা যাবে ঋতাভরীকে। যার নাম শবরী। যিনি একজন সংস্কৃতের অধ্যাপক। এর পাশাপাশিই চিরাচরিত ধ্যান-ধারণার বাইরে গিয়ে তিনি একটি গোপন মিশনে যুক্ত। আর এই কাজে তাকে সাহায্য করে প্রমিলা বাহিনী। যৌথ পরিবারের বউ হওয়া সত্ত্বেও কীভাবে এই গোপন মিশন তিনি সম্পন্ন করেন এই নিয়ে এতদিন সবার কৌতুহল ছিল। এবার সব উত্তর তিনি নিজেই দিয়ে দিলেন। অধ্যাপনারা পাশাপাশিই প্রমিলা বাহিনীকে সঙ্গে নিয়ে ঘরে-বাইকে তিনি সমান তালে চালিয়ে যাবেন শবরী।