সেই 'ওগো বধূ সুন্দরী' ধারাবাহিকের হাত ধরে বিনোদন জগতে পদার্পণ। সেখান থেকে তাঁর লাবণ্যে মুগ্ধ হয়েছিল দর্শকমহল। তখন ঋতাভরীর বয়সও খুবই অল্প। কলেজ পাশ করেই লাইট ক্যামেরা অ্যাকশনের পৃথিবী তাঁকে হাতছানি দিতেই এক ডাকে চলে এসেছিলেন তিনি। সেই ঋতাভরী এবং এখনকার ঋতাভরীর মধ্যে অবশ্য আকাশ পাতাল তফাত। তখনকার ইনোসেন্স থাকলেও এখন অভিনেত্রী বেশ ম্যাচিওর। 

অভিনেত্রী হিসেবে এবং মানুষ হিসেবেও। ঋতাভরীকে নিয়ে ভক্তদের মধ্যে উন্মাদনা নতুন নয়। বহু বছর ধরেই ঋতাভরীর অভিনয়, সৌন্দর্যে মন হারিয়েছে অসংখ্য মানুষের। বাংলা টেলিভিশনে কাজ করতে করতেই একের পর এক টলিউডের ছবির প্রস্তাব আসতে শুরু করে তাঁর কাছে। এমনকি বলিউডেও নামি প্রযোজক, পরিচালকদের সঙ্গে কাজ করেছেন এবং আগামী দিনেও করছেন। কেবল ছবির মাধ্যমেই যে তিনি বিনোদনের জোগান দিচ্ছেন তা একেবারেই নয়।

আরও পড়ুনঃক্রপ টপ, লেদার জ্যাকেট সঙ্গে Nude লিপস, দর্শনার শীতের আমেজেও উষ্ণতার ছোঁয়া

 

নিজের নিত্যদিনের সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের মাধ্যমেও বিভিন্ন রকম ভাবে অনুরাগীদের মুগ্ধ করেন ঋতাভরী। তবে বেশিরভাগ ভক্তদেরই চোখ যায় তাঁর হটনেসে। এত বছরে তিনি নিজেকে পুরোপুরি বদলে ফেলে একেবারে গ্ল্যামার কুইন হয়ে উঠেছেন। টোনড চেহারা, গ্রুমিং, হেভি ওয়ার্ক আউটে, এখন ঋতাভরীর জীবনেই আলাদা। সম্প্রতি নিজের এক ভিন্ন অবতার পোস্ট করলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে তাঁকে দেখা যাচ্ছে অফ শোল্ডার পোশাকে। 

আরও পড়ুনঃকৃষক আন্দোলনে এবার সামিল মিমিও, পাশে এসে দাঁড়ালেন সাংসদ-অভিনেত্রী

 

অফ শোল্ডার পোশাকের সঙ্গে মেসি হেয়ারই মানানসই বলে তেমনই হেয়ারস্টাইলে ধরা দিয়েছেন তিনি। তবে সকল নেটিজেনদের চোখ গিয়েছে তাঁর স্মোকি আইজে। এমন চাউনি আগে কখনও দেখা গিয়েছে কি না তা নিয়ে রয়েছে সন্দেহ। ঋতাভরীর দুষ্টু-মিষ্টি লুকের মাঝে এমন হটনেস হজম করা বেশ শক্ত ব্যাপার। নিজেকে ওয়াইল্ড চাইল্ড বলেই পেশ করলেন ঋতাভরী। হটনেসের পাশাপাশি ব্যক্তিগত জীবনের ঝলক নিয়ে প্রস্তুত তিনি। বড়দিনের আগেই বাড়ি সাজিয়ে তুলছেন অভিনেত্রী। ইতিমধ্যেই তৈরি করে ফেলেছেন ক্রিসমাস ট্রি। সেই ভিডিও পোস্ট করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।