লকডাউনে যেমন অনেকেই সমস্যায় পড়েছেন তেমনই আবার লকডাউনের জেরে বলি-টলি অনেকেই একত্র হয়েছেন। আর সেই তালিকায় রয়েছে টলিপাড়ার বঙ্গতনয়া সোহিনী সরকার। দীর্ঘদিন ধরেই তাকে নিয়ে উত্তাল গোটা টলিপাড়া।টলিপাড়ার প্রথমসারির অভিনেত্রীদের তালিকায় নিঃসন্দেহে রয়েছেন সোহিনী সরকার। বরাবরই চেনা ছক থেকে বেরিয়ে নতুনের সন্ধানে রয়েছেন সোহিনী। অভিনয় নিয়ে একের পর এক এক্সপেরিমেন্ট করেই চলেছেন অভিনেত্রী। বেশ কিছুদিন ধরেই  তার প্রেম নিয়ে টলিপাড়ার গুঞ্জন চলছে। কার সঙ্গে রিলেশনে রয়েছেন অভিনেত্রী সোহিনী সরকার তা জানার আগ্রহের শেষ ছিল না। অবশেষে ভালবাসার দিবসের দিন নিজের সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী।

আরও পড়ুন-এবার পুলিশি অভিযোগ দায়ের কঙ্গনার বিরুদ্ধে, জোর জল্পনা বি-টাউনে...

 টলি অভিনেতা রণজয় বিষ্ণুর সঙ্গে তিনি সম্পর্কে রয়েছেন একথা সকলেরই জানা হয়ে গেছে এতদিনে। লকডাউনের কারণেই কোনও পরিকল্পনা ছাড়াই পরিস্থিতি তাদের এক করে দিল। বর্তমান এই কঠিন পরিস্থিতিতে দুজনেই লিভ ইন করছেন। গত ২৯ মার্চ রণজয়ের জন্মদিন  ছিল। প্রেমিকার বাড়িতেই জন্মদিন সেলিব্রেশন করে পরের দিনই সোহিনীর বাড়িতে চলে এসেছেন রণজয়। এই লকডাউনের মধ্যে  রণজয়ের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় ধরা দিয়েছেন অভিনেত্রী সোহিনী। কিছুদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেই সেই অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি দিয়েছেন অভিনেতা। মুহূর্তের মধ্যে ছবিটি ভাইরাল হয়েছে। 

 

আরও পড়ুন-Coronavirus LIVE, দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ২৩ হাজার ছাড়াল, মৃতের সংখ্যা ছুঁয়ে ফেলল ৭০০ গণ্ডি...

আরও পড়ুন-করোনা যুদ্ধ জিতে নজির গড়ে বাড়ি ফিরলেন ৯২ বছরের বৃদ্ধা, হেরে গেল ৪ মাসের ছোট্ট শিশু...

 আরও পড়ুন-দিল্লিতে একসঙ্গে আক্রান্ত হাসপাতালের ১৪ জন চিকিৎসক , মহারাষ্ট্রে কোয়ারেন্টাইনে প্রায় ৮৩ শতাংশ...


সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী সোহিনী জানিয়েছেন, 'এই কঠিন পরিস্থিতিতে একে অপরকে ছেড়ে দূরে থাকাটা বেশি কষ্টের। তাই একসঙ্গে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েচেন দুজনে। আর এই মুহূর্তে একসঙ্গে থাকতে পেরে , সময় কাটাতে পেরে দুজনেই খুশি। এটাই সঠিক সময় একে অপরকে চেনার , বোঝার, জানার। আর এই কঠিন পরিস্থিতিই আমাদের আরও কাছাকাছি এনে দিয়েছে।' অভিনেতা রণজয় জানিয়েছেন,  'লিভ-ইনে থাকাকালীন দুজনেই কাজের দায়িত্ব ভাগ করে নিয়েছেন। রান্নার পুরো দিকটাই সামলাচ্ছেন সোহিনী, আর ঘরের দায়িত্ব আমার। তার সঙ্গে বাথরুম পরিষ্কারের কাজও আমার দায়িত্বে।' এখানেই শেষ নয়, সোহিনীর রান্নার প্রশংসায় পঞ্চমুখ রণজয়। আপাতত রান্না করে, অবসর সময়ে ছবি এঁকে, শরীরচর্চা করে সময় কাটাচ্ছেন এই যুগল।