তাপস পালের মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই টলি-পাড়ায় নেমে আসে শোকের ছায়া। মঙ্গলবার ভোরে তাঁর মৃত্যুর খবর পাওয়া মাত্রই শোকে ভেঙে পড়ে দর্শক কূলও। পরিবারের তরফ থেকে জানানো হয় এদিন ভোর ৩.৩৫ নাগাদ মৃত্যু হয় তাপস পালের। জীবনের শেষ কটা দিন কেমন ছিলেন অভিনেতা! নানা চরাই উৎরাই-এর সাক্ষী থেকেছেন তিনি। এবের মধ্যে দিয়েও লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশনের নেশা তাঁকে তাড়িয়ে নিয়ে বেরাত। 

আরও পড়ুনঃ আজ সন্ধ্যায় মরদেহ আসবে কলকাতা, বুধবারই তাপস পালের শেষকৃত্য

অভিনেত্রী ইন্দ্রাণী হালদার শোক বার্তা জ্ঞাপন করে জানান, শেষ সময় আবারও বড় পর্দায় ফিরতে চেয়েছিলেন তাপস পাল। অভিনয় জগতে এক সময় যাঁর ছিল এক চেটিয়া দাপট, সেই মানুষটাই শেষ সময় একটা পাঠের জন্য অনুরোধ করেছিলেন অনেককেই। ইন্দ্রাণী হালদারের কাছে একটি ফোন আসে তাপস পালের। মৃত্যুর ঠিক দু মাস আগের ঘটনা। ফোনটা ধরতেই উল্টোদিক থেকে শোনা যায় তাপস পালের গলা। জানিয়েছিলেন, প্রযোজকের সঙ্গে কথা বলতে। তিনি আবারও ফিরতে চান পর্দায়। 

ইন্দ্রাণী হালদারের যখন টলিউডে পা রাখেন, তাপস পাল তখন স্টার। ছোট ছোট বিষয় নতুনদের সাহায্য করতেন। সকলের পাশে দাঁড়াতেন। এমনটি ইন্দ্রাণী হালদারের বিয়েও তাঁরই জন্য। ভাষ্করকে চেনা তাপস পালের জন্যই। এদিন শোকস্তব্ধ ইন্দ্রাণী হালদার জানান, একটি আউট ডোর শ্যুটিং-এ আলাপ করিয়েছিলেন ছিলেন দুজনের তাপস পালই। তাই তাপস পালের স্মৃতি ইন্দ্রাণী হালদারের জীবনে এক ভিন্ন স্থানে