সরস্বতী পুজো মানে বাঙালির ভ্যালেন্টাইন ডে।  এই দিনটি নিয়ে বরাবরই বাঙালিদের একটা অন্য ভাললাগা রয়েছে। এই বছরের সরস্বতী পুজো যেন আরও একটু বেশি স্পেশ্যাল। কারণ এই বছর একজদিন নয়, বরং দুদিন ধরে পড়েছে সরস্বতী পুজো। আর এই নিয়ে মজার শেষ নেই। অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও মেতেছেন এই পুজোর আনন্দে।  টলি অভিনেত্রী তথা সাংসদ মিমি চক্রবর্তী বাগদেবীকে নিষ্ঠা ভরে প্রনাম করেছেন। এর পাশাপাশি সকলকে শুভেচ্ছাও জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন-হাইওয়েতে ভয়াবহ দুর্ঘটনা, অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচলেন অঙ্কুশ...

 

 

সরস্বতী পুজো মানেই বাঙালির ভ্যালেন্টাইন ডে। তিনি নিজেও এই দিনটি ভাল করে কাটানোর জন্য বলেছেন। কিন্তু এই প্রেমদিবসের দিন এত মনখারাপ কেন মিমির। কার জন্য এত উদাস মনে রয়েছেন অভিনেত্রী। সম্প্রতি নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী। সেখানেই তাকে মন খারাপ করতে দেখা গেছে। মিমি যেন বড্ড একা।  তার চোখে মুখে ফুটে উঠেছে একাকীত্বের ছোঁয়া। ভালবাসার দিবসে একা একা  কী বা করছেন অভিনেত্রী। এই প্রশ্নই এখন উঠে আসছে। সাংসদ হওয়ার পর দায়িত্ব অনেক বেড়েছে অভিনেত্রীর। কিন্তু প্রেমদিবসে একা একা রয়েছেন বলেই কি মনখারাপ অভিনেত্রীর। আর তাই কি এমন ভিডিও পোস্ট করে সকলকে জানালেন মিমি। নাকি এর পিছনে অন্য কোনও কারণ রয়েছে।

 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

❤️❤️❤️

A post shared by Mimi (@mimichakraborty) on Jan 29, 2020 at 3:49am PST

 

একবার  নয়, একাধিকবার খবরের শিরোনামে  উঠে এসেছে তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তীর নাম।  আবারও নয়া বির্তকে উঠে এসেছেন তিনি। সম্প্রতি একটি তেলের বিজ্ঞাপনে দেখা গিয়েছে মিমিকে। আর সেই বিজ্ঞাপন থেকেই হয়েছে সমস্যার সূত্রপাত। তেলের বিজ্ঞাপনে 'জনপ্রতিনিধি' পরিচয় ব্যবহার করেছেন মিমি। বিজ্ঞাপনের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে  তাকে নিয়ে ইতিমধ্যেই অনেক জলঘোলা হয়েছে।  বাবুল সুপ্রিয় থেকে লকেট চট্টোপাধ্যায়, সায়ন্তন বসু, সুজন চক্রবর্তী সকলেই এর বিরোধিতা করেছেন।   এই ঘটনাকে অনেকে নজিরবিহীন ঘটনা বলেও দাবি করেছেন।