রবিবার মানেই কব্জি ডুবিয়ে মাংস-ভাত। বাঙালির এই ছুটির দিনে নেই অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত। বাড়িতেই চলছে তাঁর জিম সেশন। সেই পোস্ট ওয়ার্ক আউট সেলফি তুলে পোস্ট করলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানেই এখন একের পর এক ভক্তদের প্রশংসা। প্রসঙ্গত অভিনেতার আগামী ছবি 'এসওএস কলকাতা'র শ্যুটিংয়ের অন্দরমহলের ঝলক পাওয়ার জন্য উৎসাহী ছিল দর্শকমহল। সেই ঝলক এখন ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়। লকডাউনের মাঝে সমস্ত নিয়ামবলী মেনেই চলছে শ্যুট। সেটে কলাকুশলী ছিল কম। সেট থেকে নানা বি ভিডিও এখন দ্রুতগতিতে ভাইরাল হয়ে চলেছে নেটদুনিয়ায়। মিমি চক্রবর্তী এবং নুসরত জাহানের সঙ্গে যশকে দেখা যাবে এই ফিল্মে। করোনা আতঙ্কে লকডাউনে কাটছে তিলোত্তমার দিনরাত। এরই মধ্যে বন্ধ ছিল বিনোদন জগতের সমস্ত শ্যুটিং এবং কাজ। 

আরও পড়ুনঃ'রিয়াকে কি ভালবাসেন', প্রশ্ন শুনতেই নিমেষে এমন প্রতিক্রিয়া দিয়েছিলেন সুশান্ত, ভাইরাল ভিডিও

সম্প্রতি নানা সতর্কতা মাথায় রেখেই শুরু হয়েছে শ্যুটিং। ধারাবাহিকের শ্যুটিং শুরু হলেও এতদিন বন্ধ ছিল সিনেমার শ্যুটিং। এই প্রথম করোনা প্রকোপের মাঝেই শুরু হয় ছবির শ্যুটিং। এসওএস কলকাতা। পরিচালক অংশুমান প্রত্যূষের আগামী ছবি। ছবিতে প্রধান ভূমিকায় থাকছেন যশ দাশগুপ্ত, নুসরত জাহান এবং মিমি চক্রবর্তী। সরকার দ্বারা প্রযোজ্য সমস্ত নিয়মাবলী মেনেই চলছে শ্যুটিং। ছবির চিত্রনাট্য অনুযায়ী, এই রোমাঞ্চকর গল্পটি বোনা হয়েছে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে ছবির ফার্স্ট লুক। পোস্টারে দেখা গিয়েছে যশ বন্দুক হাতে দাঁড়িয়ে রয়েছেন। পাশে জড়িয়ে ধরে আছেন একটি বাচ্চা মেয়েকে। 

আরও পড়ুনঃদেবলীনার 'ফিট' পোজ, ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গে বঙ্গতনয়ার তুলনায় ভক্তরা

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

The Grind Includes Sunday...

A post shared by Yash (@yashdasgupta) on Aug 2, 2020 at 6:54am PDT

 

আগামী পুজোতেই মুক্তি পেতে চলেছে এসওএস কলকাতা। তবে মুক্তির দিন এখনও ঘোষণা করা হয়নি। যশের সঙ্গে মিমি এবং নুসরত দু'জনেই ভিন্ন ছবিতে অভিনয় করেছেন। পোস্টার দেখে ভক্তদের মধ্যে উত্তেজনা তুঙ্গে। এতদিন কোনও বিগ বাজেট ছবির ঘোষণা না মেয়ে যেন মর্চে ধরেছিল সিনেপ্রেমীদের মনে। অবশেষে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললেন তাঁরা। এ বছর পুজোর জন্য অধীর আগ্রবে বসে তারা। ছবির প্লট ইতিমধ্যেই সারা ফেলে দিয়েছে বিনোদন জগতে। শুভেচ্ছা জানিয়ে চলেছে ভক্তরা। সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন, আউটডোর শ্যুটিংয়ে নেই কোনও আপত্তি। তবে ফাঁকা জায়গায় চল্লিশ জন লোক নিয়ে করতে হবে শ্যুটিং।