রণবীরের প্রেমে একেবারে হাবুডুবু খাচ্ছেন আলিয়া ভাট। যখনই কোনও সাক্ষাৎকার দিচ্ছেন, রণবীরের ব্যাপারে কথা বলছেন। এবার তিনি জানালেন কী ভাবে তাঁরা নিজেদের মধ্যে সুসম্পর্ক বজায় রাখেন। 

প্রথমেই তিনি জানান যে পুরোটাই নিজেদের মধ্য়ে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের জন্য সম্ভব হয়েছে। আলিয়ার কথায়, এটাকে সম্পর্ক বলব না। এটা আসলে বন্ধুত্ব। আমি পুরো সততার সঙ্গে কথাটা বলছি। এটা খুব সুন্দর। আমার মনে হয় আমি যেন তারা ও মেঘেদের উপরে হেঁটে বেড়াচ্ছে। বলা ভাল, আমরা দুজনে দুটো ভিন্ন মানুষ যাঁরা পেশার জায়গায় মন দিয়ে কাজ করছি। ও শ্যুটিং করে চলেছে। আমিও করছি। আমাদের কিন্তু সব সময়ে একসঙ্গে দেখবেন না। একটা সুস্থ সম্পর্কের লক্ষণ এটাই। নজর না লেগে যায়! 

রণবীরের ভাবমূর্তি সম্পর্কে মানুষের মধ্যে অনেক প্রশ্ন রয়েছে। তার উপরে তিনি কোনও সোশ্যাল মিডিয়াও ব্যবহার করেন না। এ প্রসঙ্গে আলিয়া বলেন, রণবীর মোটেই জটিল মানুষ নন। ও দারুণ। শুধু ওর অতীতে কিছু সমস্যা ছিল।  কিন্তু তাতে কীই বা যায় আসে। আর আমিও বা কম যাই কীসে! 

কিন্তু বিয়ের প্রসঙ্গ উঠলেই বিরক্ত হন আলিয়া। আলিয়া বলেন, একজন মানুষ ও অভিনেতা হিসেবে রণবীর আমার থেকে অনেক ভাল। কিন্তু প্রত্যেক দিন সকালে উঠে বিয়ের খবর পড়তে বিরক্ত লাগে। আমি তখন ওকে ফোন করে বলি কী হচ্ছে! ওর বোধহয় অভ্যেস হয়ে গিয়েছে। 

প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে দুজনেই ব্যস্ত অয়ন মুখোপাধ্যায়ের ছবি ব্রহ্মাস্ত্র নিয়ে। কিছুদিন আগে দুজনকে একসঙ্গে কাশী বিশ্বনাথ মন্দিরে যেতে দেখা গিয়েছিল।