রীতিমতো বাধ্য হয়েই তড়িঘড়ি জয়া বচ্চনকে বিয়ে করতে হয়েছিল। ৪৬ তম বিবাহবার্ষিকীতে এসে সে কথাই জানালেন অমিতাভ বচ্চন। 

নিজেদের সম্পর্কের ব্যাপারে কোনওদিনই সে ভাবে জাহির করেননি বিগ-বি বা জয়া। সোমবার বিবাহবার্ষিকীতে এক আনকোরা গল্প নিজের ব্লগে শেয়ার করলেন অমিতাভ বচ্চন। 

বিগ বি জানান, তখন ১৯৭৩ সাল। বন্ধুবান্ধব ও জয়াকে সঙ্গে নিয়ে লন্ডনে ছুটি কাটাতে যাওয়ার প্ল্যান করছিলেন তিনি। কিন্তু এই ব্যাপারটা মোটেও ভাল ভাবে নেননি অমিতাভের বাবা হরিবংশ রাই বচ্চন।  তিনি বলেছিন, বিয়ে করে তবেই দুজনে বেড়াতে যেতে পারবেন। সেই সময়ে অমিতাভ ও জয়া সম্পর্কে রয়েছেন।

অন্যদিকে বন্ধুদের কথা দিয়ে বসে রয়েছেন বিগবি। তিনি বলেছিলেন, জঞ্জির হিট করলেই বন্ধুদের নিয়ে লন্ডন বেড়াতে যাবেন। অবশেষে হরিবংশ রাই বচ্চনও জানতে পেরে যান, শুধু বন্ধুবান্ধবই নয়। অমিতাভের সঙ্গে যাচ্ছেন জয়াও। ব্যস! তিনি তো ছেড়ে দেওয়ার পাত্র নন। অমিতাভকে বললেন, যদি যেতেই হয়, তাহলে আগে বিয়ে করবে, তার পরে যাবে। 

বাবার এই নির্দেশ ফেলে দিতে পারেননি অমিতাভ। তাই বাবার চাপে সঙ্গে সঙ্গেই জয়াকে বিয়ে করতে হয় বিগবির। যদিও তাঁরা তখন সম্পর্কেই ছিলেন। কিন্তু সেই সময়ে বিয়ে নিয়ে সেভাবে পরিকল্পনা ছিল না। কিন্তু অবশেষে বাবার নির্দেশ আর বন্ধুদের নিয়ে বেড়াতে যাওয়ার প্ল্যানের জন্য বিয়ের পিঁড়িতে  বসেন বিগবি ও জয়া বচ্চন। 

বিগবি ও জয়া  বচ্চন একসঙ্গে বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। তার মধ্যে  অত্যন্ত জনপ্রিয় হল 'শোলে', 'সিলসিলা', 'অভিমান', 'কভি খুশি কভি গম'। 

 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

Happy Anniversary to the parentals! Love you both eternally. #46andcounting

A post shared by Abhishek Bachchan (@bachchan) on Jun 2, 2019 at 7:37pm PDT

 

প্রসঙ্গত, মা বাবার বিবাহবার্ষিকী উপলক্ষে এদিন অভিষেক বচ্চনও ইনস্টাগ্রামে একটি  পোস্ট করেন।