সৌন্দর্য, গ্ল্যামার, শরীরী হিল্লোল,  পর্দা কাঁপানো  আবেদনময়ী চাহনিতে কোটি কোটি পুরুষের হৃদয় জয় করে রাতের ঘুম উড়িয়েছেন বলিউডের এভারগ্রীন অভিনেত্রী রেখা। রেখা মানেই সাড়া জাগানো, টানটান উত্তেজনা। বলিউডের উমরাওজানের ব্যক্তিগত জীবনটাও ছিল চলচ্চিত্র জীবনের মতোই ঝা চকচকে  । নিজের অবস্থান ও ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে সবসময়েই  সচেতন ছিলেন এই অভিনেত্রী। মোহময়ী এই নায়িকার রিল লাইফের প্রেমিকাস্বত্ত্বা ছিল রিয়েল লাইফেও।  সত্তর থেকে নব্বই-অসংখ্য নায়কের বিপরীতে অভিনয় করে একাধিক সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন রেখা।

আরও পড়ুন-পরিচালকের কথা মানতে অস্বস্তি মৌনির, অক্ষয়কে কাছ থেকে দেখে কী হয়েছিল অভিনেত্রী...

তিনি বরাবরই সাহসী, গতে বাধা সমীকরণ থেকে তিনি বরাবরই বেরিয়ে এসেছেন। তাকে নিয়ে রয়েছে হাজারো বির্তক, সমালোচনা চলে আসছে যুগ যুগ ধরে। এই প্রজন্মের নায়িকাদেরও এখন টক্কর দিতে প্রস্তুত রেখা। আজও অমলিন তার ম্যাজিক। প্রেমের সম্পর্ক হোক বা গুঞ্জন সবার প্রথমেই উঠে আসে বলিউডের বিগ-বি অমিতাভের নাম। কখনও নায়ক তো কখনও ব্যবসায়ী একের পর এক সম্পর্কে জড়িয়ে উঠে এসেছে একাধিক নাম। সেই দিক থেকে দেখতে গেলে অমিতাভের স্থান শেষের দিকে। পুরুষকে আকৃষ্ট করতে রেখার জুড়ি মেলা ভার। বলি আইকনের ক্যারিশ্মার জাদুতেই মুগ্ধ আট থেকে অষ্টাদশী।

আরও পড়ুন-নবদম্পতিকে শুভেচ্ছাবার্তা শাহরুখের, ট্যুইটে শেয়ার করলেন ছবি...

   গণমাধ্যমে প্রকাশ হওয়া একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায় ১ জন নয় ১১ জনের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন রেখা। প্রথম জীবনে মেহবুব খানের ছেলে সাজিদ খানের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান রেখা।  সাজিদের সঙ্গে বিচ্ছেদের পরই 'শাওন ভাদো' সিনেমার সেটেই নভিন নিশ্চলের সঙ্গে নাম জড়ায় তার। সেই সম্পর্ক বেশিদিন টেকেনি। তার কিছুদিনের মধ্যেই 'আনজানা সফর' ছবির সময় বিশ্বজিতের সঙ্গে প্রেম জড়িয়ে পড়েন রেখা। সেই সম্পর্কেও চির ধরে যাওয়ার পরই বলিউডের প্লে বয় জিতেন্দ্রর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান। তারপর আবার শক্রঘ্ন সিনহার সঙ্গে তার নাম শোনা যায়। শক্রঘ্ন সিনহার পর বিনোদ মেহেরার সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান অভিনেত্রী। তার মায়ের জন্যই নাকি সে সম্পর্ক বেশিদিন টেকেনি। তারপর দেব আনন্দের ভাইপো যশ কোহলির সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন অভিনেত্রী, এমনকী বিয়ের গুঞ্জনও শোনা গিয়েছিল। যশের পর কিরণ কুমারের সঙ্গে সম্পর্ক জড়ান। কিরণের পর আসেন বলিউডের বিগ-বি অমিতাভ বচ্চন। যা নিয়ে এখনও অনেক গুঞ্জনই শোনা যায়। তবে দুজনের কেউই এই নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে নারাজ।

আরও পড়ুন-লতা এখনও আইসিইউ-তে, কী বলছে পরিবার...

বলিউডের অমর প্রেমের জুটি বলতে গেলেই প্রথমেই উঠে আসে রেখা এবংঅমিতাভের নাম। কিন্তু গ্ল্যামার কুইনের এই সম্পর্কও বেশিদিন টেকেনি। দিল্লীর শিল্পপতি মুকেশ আগরওয়ালের সঙ্গে ১৯৯০ সালে বিয়ে হয় রেখার। বিয়ের এক বছরের মধ্যেই আত্মহত্যা করে মুকেশ। এখানেই শেষ নয়, বয়সে ছোট অক্ষয় কুমারের সঙ্গেও প্রেমের গুঞ্জন শোনা যায় । একের পর এক সম্পর্ক এসেই গেছে তার জীবনে। মন দেওয়ার মধ্যেই কখনও কেউ ছেড়ে চলে গেছে আবার কখনও নিজে কাউকে ছেড়ে চলে এসেছেন এই বলি ডিভা। সমালোচনা আজও যেন তার পিছু ছাড়ে না। তার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কৌতুহলী দর্শক। বলিউডের হাজারো অভিনেত্রীর জৌলুস আজও তাকে ফিকে করতে পারে নি। হাজারো প্রেমের ভিড়ে তিনি আজও চির নতুন, চির যৌবনা বলিউডের এভারগ্রীন রেখা।