ছবির রিভিউ প্রথম থেকেই ছিল মিশ্র। কারুর কাছে ছিল যুক্তিহীন পটভূমি, কারুর কাছে আবার অনবদ্য অ্যাশকন। দুয়ে মিলিয়ে সাহো এখনও বক্স অফিস দৌড়ে নিজের জায়গা পাকাপাকি ভাবে ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে। ছবি মুক্তি পেয়েছে মাত্র নয় দিন। এরই মধ্যে একের পর এক বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছিল সাহো। কিন্তু সেই বিতর্ককে এক প্রকার উড়িয়ে দিয়েই নয়া রেকর্ড গড়ল সাহো।

আরও পড়ুনঃ বৃষ্টির মধ্যে সাইকেল চালিয়ে কোথায় গেলেন সলমন, নেট দুনিয়ায় ভাইরাল ভিডিও

দক্ষিণী ছবি মানেই তা অ্যাকশন ভরপুর। কিন্তু দক্ষিণী অভিনেতা মানেই বিশ্বের কাছে পরিচিতি ছিল একজনের। তিনি হলেন রাজনীকান্ত। থালাইভা-র জাদুতেই এতদিন কাবু ছিল বিশ্ব। কিন্তু সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়ে এখন একাই তিনশো প্রভাস। ছবির প্রতিটি ধাপেই যেন পথে ছিল একাধিক বাধা। একের পর এক প্রশ্ন উঠতে থাকে ছবি ঘিরে।

ছবির পোস্টার থেকে শুরু করে চিত্রনাট্য, সবই নাকি টুকে তৈরি করা হয়েছে ছবিতে। এমনকি ছবিতে প্রভাসের পাঠ নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়েছে। তবুও সেরার তালিকায় সবার ওপরে নাম লিখলেন প্রভাস। ইতিমধ্যেই সারা বিশ্ব জুড়ে বক্সঅফিসে আয় করেছে  এই ছবি ৩৭০ কোটি টাকা। নয় দিনের মধ্যেই সাহো ছবির বাজেট উঠে এল প্রযোজক সংস্থার হাতে।

আরও পড়ুনঃ সুইমিং স্যুটেই বাজিমাত, একে অন্যকে টেক্কা দিয়ে ছবি পোস্ট বলিউড নায়িকাদের

এর আগে দক্ষিণী ছবি বিশ্বে এতটা সাফল্য লাভ করেনি করেনি। ফলে থালাইভাকে পেছনে ফেলে এগিয়ে চলল প্রভাস। একের পর এক ছবিতে বাজিমাত। বাহুবলীর পর এবার নয়া রেকর্ড গড়ল সাহো।