এক পাপারাৎজীকে সম্প্রতি উচিত শিক্ষা দিয়েছিলেন সুশান্তের মরদেহের ভিডিও পোস্ট করার জন্য। বিভিন্ন পাপারাৎজীর পেজ এখন ভরে গিয়েছে সুশান্তের পুরনো, নতুন, শেষকৃত্যের ছবি-ভিডিওতে। যে সকল পাপারাৎজী আগে সুশান্তের একটি ছবিও পোস্ট করত না তারা একদিন প্রায় কুড়িটি পোস্ট সুশান্তকে নিয়ে দিয়ে চলেছে। এরই মধ্যে একজন পাপারাৎজী সুশান্তের মরদেহ হাসপাতাল থেকে শশ্মানে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, সেই ভিডিও পোস্ট করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। 

আরও পড়ুনঃ'তোমার আর সুশান্তের কোনও রসায়নই নেই', নাক শিঁটকালেন করণ, ভিডিও ভাইরাল নেটদুনিয়ায়

সেই পোস্টের নিচে লেখা, "অনুরোধ করছি আমার তোলা এই ছবি ও ভিডিও কেউ নিজের প্রোফাইলে পোস্ট করতে পারবেন না আমার লিখিত অনুমতি ছাড়া।" এতেই ক্ষোভ উগরে দিলেন দীপিকা। সেই পোস্টের কমেন্ট সেকশেন অভিনেত্রীর রোষ পড়তে হল সেই পাপারাৎজীকে। এমনকি দীপিকার মন্তব্যে সমর্থন জানিয়েছে নেটিজেনরাও। দীপিকা লেখেন, "আচ্ছা, তোমার কি এই ভিডিওটা পোস্ট করা উচিত হয়েছে। তাও আবার ওর পরিবারের থেকে কোনও অনুমতি না নিয়েই ভিডিওটি করেছ। আবার পোস্টও করে দিয়েছ সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে। এটা করার আগে ভাবা উচিত ছিল না কি।" এর পাল্টা জবাবে পাপারাৎজীর প্রশংসায় ভরে উঠল সোশ্যাল মিডিয়া।

আরও পড়ুনঃঅ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে জনসমক্ষে করণকে অপমান কঙ্গনার, দেখুন ভিডিও

 

 

তিনি দীপিকাকে ট্যাগ করে লেখেন, "আপনারা নিজেদের পার্টিতে যাদের আমন্ত্রণ জানাচ্ছেন, তাঁদের মধ্যে কেউ যখন মারা যায়, তখন আপনাদের দেখাও পাওয়া যায় না। এই ধরণের নৃশংস ইন্ডাস্ট্রি আগে দেখিনি। একাধিক শেষকৃত্যু, শ্রদ্ধানুষ্ঠান কভার করেছি তবে রাজা মুরাদ এবং অশোক পন্ডিত ছাড়া কাউকে দেখিনি। আপনার কি মনে আমি বাসু চট্টোপাধ্যায়ের শ্রদ্ধানুষ্ঠান কভার করেছিলাম টাকার জন্য? আমরা ছাড়াও বহু চ্যানেল শ্রদ্ধানুষ্ঠানে কোনও নিয়মাবলী না মেনেই কভার করছিল। তবুও পাপারাৎজীকেই অবশেষে অপমানিত হতে হয়।"