সুশান্তের মানসিক অবসাদের কারণ হিসেবে করণ জোহারের অনুষ্ঠান কফি উইথ করণকে দায়ী করেছে নেটিজেনরা। অভিযোগ, এই অনুষ্ঠান ক্যানডিড কথপোকথনের জায়গায় অনেকেই নিজেদের ব্যক্তিগত মতামত রাখতে গিয়ে অন্যান্য তারকাদের নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করে ফেলেন। কফি উইথ করণ নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটাই কথা, ব্যান করা হোক এই অনুষ্ঠানকে। এই অনুষ্ঠানটি নাকি বিনোদন জোগান করার চেয়ে বেশি অধিকাংশ মানুষের মনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। অভিযোগটি সত্যি না মিথ্যে তার বিচার করার আগেই আরও একটি ভিডিও এল প্রকাশ্যে।

আরও পড়ুনঃ'এতই যদি চিন্তা সুশান্তের শেষকৃত্যে দেখা যায়নি কেন আপনাকে', দীপিকাকে একহাত নিল পাপারাৎজী

গত বছরের সিজনে একটি পর্বে কৃতি স্যানন এবং কার্তিক আরিয়ান অথিতি হিসেবে এসেছিলেন কফি উইথ করণে। সেখানে ব়্যাপিড ফ্যায়ার রাউন্ডে কৃতিকে প্রশ্ন করা হয়, তাঁর সঙ্গে কার্তিক এবং সুশান্তের মধ্যে কাকে জুটি হিসেবে দেখতে ভাল লাগে। কৃতি উত্তরে বলেন, "রাবতা ছবিটি যেহেতু আমাদের রসায়নের জন্য প্রশংসিত হয়েছে তাই আমার মনে হয় আমায় সুশান্তের সঙ্গে বেশি মানায়।" এই জবাবে সঙ্গে সঙ্গে করণ কেমন যেন নাক শিঁটকিয়ে বললেন, কোথায় রসায়ন। তিনি তো কিছুই দেখতে পাননি। এতেই নেটিজেনরা প্রশ্ন তুলেছে, "তুমি যে ধরণের ছবি পরিচালনা করো, তোমার অন্তত সুশান্তের অভিনয় দক্ষতা নিয়ে কিছু বলার থাকতে পারে না। তুমি যে সুশান্তকে পছন্দ করতে এই ভিডিওই তার প্রমাণ।"

আরও পড়ুনঃঅ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে জনসমক্ষে করণকে অপমান কঙ্গনার, দেখুন ভিডিও

 

কফি উইথ করণের বিরুদ্ধে যে ক্ষোভ মানুষ উগরে চলেছেন সেই কারণে চ্যানেলটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, কফি উইথ করণের শ্যুট করা হবে না। করণের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতেই শুরু হয়েছে তাঁকে নিয়ে ট্রোল তৈরি করা। অস্রাব্য ভাষায় অপমান করা। বাদ যায়নি তাঁকে ব্যক্তিগত মেসেজে হুমকি দেওয়াও। সোশ্যাল মিডিয়ায় সাংঘাতিক রোষে পড়ে অবশেষে ট্যুইটার থেকে আনফলো করে দিয়েছেন একাধিক বলিউড ব্যক্তিত্বদের। কোনও ট্যুইটও আর করছেন না ভয় ভয়। ইনস্টাগ্রামে নিজের কমেন্ট সেকশনকে বন্ধ করে রেখেছেন। যাতে কেউ কোনও কমেন্ট না করতে পারেন।