বিজেপি এমএলএ নন্দকিশোর গুর্জারের ছবি বিনা অনুমতিতে ব্যবহৃত হয়েছে অনুষ্কা শর্মার 'পাতাল লোক'-এ। এমনই অভিযোগ এনে অনুষ্কার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন নন্দকিশোর। এখানেই থেমে রইলেন না তিনি। তাঁর ইচ্ছে অনুষ্কাকে ডিভোর্স দিক বিরাট কোহলি। এমনই বিস্ফোরক ভিডিও ক্রমশ ভাইরাল হয়ে চলেছে নেটদুনিয়ায়। বিজেপির অন্যান্য সমর্থকরাও পাতাল লোকের বিরুদ্ধে সর হয়। ব্যান করার আর্জি রেখে রীতিমত আওয়াজ তুলেছিল তারা। সমস্ত বিতর্ক তুড়িতে ওড়ালেন সিরিজের প্রযোজক অনুষ্কা শর্মা।

আরও পড়ুনঃ'নিচুস্তরের বলেই কি ওরা ভাইরাসের বাহক আর আপনি নন', বিজ্ঞাপনে শ্রেণিবৈষম্যতা নিয়ে বিতর্কিত হেমা মালিনী

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, "অবশ্যই দ্বিতীয় সিজন আসবে। তবে তার জন্য আপনাদের অপেক্ষা করতে হবে। আমি এই নিয়ে অতিরিক্ত কোনও মন্তব্য করতে চাই না। অ্যামাজন উদ্যোগি হলে আমিও প্রস্তুত।" প্রসঙ্গত নন্দকিশোরকে দিন কতক আগে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে পরিষ্কার বলতে দেখা যায়, "বিরাট কোহলি দেশের জন্য খেলেন। আমার বিশ্বাস দেশের জন্য তাঁর ভালবাসা অটুট। তাই যদি হয় তাহলে অনুষ্কাকে ডিভোর্স দেওয়া উচিত। পাতাল লোকে ক্রমাগত আমাদের পার্টিকে টার্গেট করে যাচ্ছে অনুষ্কা। হিন্দুদের আক্রমণ করে চলেছে এই শো। আমি চাই শোটি ব্যান করা হোক।"

আরও পড়ুনঃঅ্যামাজন প্রাইমের প্রথম ডিজিটাল প্রিমিয়ার, জ্যোতিকার হাত ধরেই বিনোদনে ভিন্নতা পেল তামিল চলচ্চিত্র জগৎ

তিনি আগেই জানিয়েছেন, পাতাল লোকের একটি দৃশ্যে ফিকশনাল কোরাপ্টেড এক রাজনৈতিক ব্যক্তির সঙ্গে তাঁর ছবি বসানো হয়েছে। সিরিজটিকে জাতিবিদ্বেষী বলেও দাবি করেছেন তিনি। বাজপেয়ী হল এই শোয়ের ভিলেন। তাঁকে একটি হাইওয়ের উদ্বোধন করতে দেখা যাচ্ছে। সেখানে গুর্জর ঠিক পিছনেই দাঁড়িয়ে রয়েছেন। আসল ছবিতে উদ্বোধনে ছিলেন যোগী আদিত্যনাথ। আসল ছবিটি ২০১৮ সালের। গুর্জর এও দাবি করেছেন, সিরিজটির উদ্দেশ্য হল বিজেপির বিরুদ্ধে মানুষকে উস্কানো।