জাভেদ আখতার প্রথম ভারতীয় যিনি রিচার্ড ডকিনস সম্মানে ভূষিত হলেন। সমালোচনা, ধার্মিক মতবাদ নিয়ে সুবিবেচনা, মানবজাতির অগ্রগতি এবং মানবতাবাদী মূল্যবোধের কারণে তাঁকে এই পুরস্কারে সম্মানিত করা হয়েছে। এর আগে বিল মাহের এবং ক্রিস্টোফার হিচেনস এই পুরস্কার পেয়েছেন। যেকোনও সামাজিক, রাজনৈতিক পরিস্থিতি এবং ঘটনা নিয়ে তিনি নিজের মতামত জানিয়ে থাকেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাঁর সমসাময়িক শিল্পীদের থেকে সেই কারণেই তিনি আলাদা।

আরও পড়ুনঃকরোনায় আক্রান্ত মোহিনা অঝোরে কেঁদে উঠলেন লাইভে, কোয়ারেন্টাইনে থাকা যেন এক বিভীষিকা

ইসলামফোবিয়া, তবলিঘি জমাত, সিএএ, এনআরসি, এ সমস্ত নিয়ে তাঁর ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট সর্বোচ্চ ট্রেন্ডে উঠে আসে প্রায়সই। যে কারণে তাঁর বিরোধী এবং নিন্দুকদের সংখ্যা নেহাতই কম নয়। একাধিক নেটিজেনের নিন্দার পরও তিনি নানা প্রসঙ্গে নিজের অভিমত প্রকাশ করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। বারে বারে বিতর্কেও উঠে এসেছে তাঁর নাম। তবে পাশাপাশি তাঁর অনুগামীদের সংখ্যাও কম নয়। তাঁর বেশ কিছু উদ্যোগের জন্য দিনের পর দিন বাডডতে থাকে তাঁর ফলোয়াড়ের সংখ্যা। 

আরও পড়ুনঃপ্লাস্টিক সার্জারি থেকে হেয়ার ট্রান্সপ্লান্ট, নায়িকাদের থেকে এগিয়ে বলিউড হিরোরা

মাসে দেড়েক আগে রমজানের সময় তিনি সকলকে অনুরোধ জানিয়েছিলেন, বাড়িতে থেকেই প্রার্থনা করতে। জাভেদ আখতারের এই টুকুই অনুরোধ ছিল তাঁর মুসলিম ভাইদের কাছে। দেশে একতা না থাকায় অত্যন্ত চিন্তিত জাভেদ আখতার। শাবানা আজমির আপলোড করা একটি ভিডিও এই অনুরোধ জানিয়েছিলেন তিনি। যেখানে তাঁকে কে বলতে শোনা গিয়েছি নানা সমস্যার কথা। তাঁর দাবি, দেশে একতা না থাকলে এই মহামারীর সঙ্গে লড়াই করা অসম্ভব হয়ে উঠবে। তিনি মুসলিমদের জন্যও একটি বার্তা পৌঁছে দেন। লকডাউন মেনেই হোক রমজানের প্রার্থনা। এটুকুই অনুরোধ করেন তিনি।