সম্প্রতি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মোহিনা কুমারী সিং। 'ইয়ে রিশতা ক্যয় কেহলাতা হ্যয়' ধারাবাহিক অভিনেত্রী মোহিনা সহ হাসপাতালে রয়েছেন তাঁর স্বামী সুইয়্যাশ রাওয়াত এবং আরও কয়েকজন পরিবারের সদস্য। খানিকটা সুস্থ হয়ে ইনস্টাগ্রাম লাইভে এসেছিলেন মোহিনা। সেখানেই কোয়ারেন্টাইনের থাকার অভিজ্ঞতা জানাতে জানাতে কেঁদে ফেললেন অভিনেত্রী। তিনি জানান, এই অভিজ্ঞতা কেবল তাঁকে শারীরিকভাবেই ভোগায়নি, এমনকি মানসিক চাপও ফেলেছে। নিজের শরীরিক অসুস্থতা, নিজের শাশুড়ির জ্বর নিয়েও মুখ খুললেন তিনি।

আরও পড়ুনঃপ্লাস্টিক সার্জারি থেকে হেয়ার ট্রান্সপ্লান্ট, নায়িকাদের থেকে এগিয়ে বলিউড হিরোরা

মোহিনার করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবরের পর থেকেই ভক্তদের উদ্বেগ বেড়ে গিয়েছিল জানার জন্য মোহিনা কেমন আছেন। এই লাইভে সমস্ত প্রশ্নের উত্তরই তাঁরা পেয়েছেন। তিনি জানান, করোনার লক্ষণ নিজেদের মধ্যে লক্ষ্য করতেই নিজেদের আইসোলেট করে নিয়েছিলেন তাঁরা। ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার চেন কে ভাঙার এটাই একমাত্র উপায়। তিনি বলেন, "হাসপাতালে এই নিয়ে আমার ছয় দিন হল। ঋষিকেশের এই হাসপাতালে শারীরিকভাবে তেমন অসুস্থবোধ না করলেও আমি মানসিকভাবে আর পেরে উঠছি না। ভাইরাসটা যে আমার শরীরের ভিতরে আছে, এটা ভেবেই কেমন একটা লাগছে।"

আরও পড়ুনঃপ্রথম ভারতীয় হিসেবে রিচার্ড ডকিনস পুরস্কারে ভূষিত হলেন জাভেদ আখতার, চারিদিকে শিল্পীর জয়জয়কার

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

A post shared by Mohena Kumari Singh (@mohenakumari) on Jun 6, 2020 at 6:56am PDT

 

এরপরই মোহিনার প্রিয় বন্ধু অভিনেতা গৌরব জয়েন করেন সেই লাাইভ ভিডিওতে। তাঁকে দেখে নিজের কান্না আটকাতে পারেননি মোহিনা। তিনি কথা বলতে বলতে অঝোরে কেঁদে ওঠেন। হাসপাতালের এই কোয়ারেন্টাইনে থাকা যেন বিভীষিকার মত। কিছুতেই তিনি মেনে নিতে পারছেন না। ভয় কাটিয়ে উঠতে পারছেন না। গৌরব তাঁকে অনেকটাই সাহস জোগালেন। তিনি মোহিনাকে বলেন, তাঁর পরিস্থিতি উল্টো দিকে থেকে বোঝা সম্ভব নয়। তবে করোনা যুদ্ধে জয়ী হতেই হবে। নিজের পরিবারের সাতজন সদস্য হাসপাতালে ভর্তি। তাঁর শশুড় হলেন উত্তরাখন্ডের ট্যুরিজম মিনিস্টার সতপাল মহারাজ।