বলিউডের আকাশে এখন ঘন কালো মেঘ। ফের এক লেজেন্ডকে হারাল ভারতীয় ফিল্ম। বুধবার ইরফান খানের পর চিরতরে চলে গেলেন ঋষি কাপুর। সঙ্কটজনক অবস্থায় বুধবারই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। আর অল্প সময়ের ব্য়বধানে সব শেষ।তার মৃত্যুর খবর প্রথমে জানান অমিতাভ বচ্চন৷ তারপর পরিবারের পক্ষ থেকে সেই খবর নিশ্চিত করেন রণধীর কাপুর৷ ঋষি কাপুরের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন অভিনেতা তথা পরিচালক পরমব্রত চট্টোপাধ্য়ায় এবং অভিনেত্রী তথা সাংসদ নুসরত জাহান। 

 

 

 


 পরমব্রত চট্টোপাধ্য়ায় জানিয়েছেন, 'কিছু একটা খারাপ ঘটে চলেছে সারা পৃথিবী জুড়েই মানবজাতির সঙ্গে। আপনাকে আমরা সবাই মনে রাখব সব খুশির মুহূর্তেই। কারণ আজীবনকাল আপনি অভিনয়ের মধ্য় দিয়ে আমাদের সকলকে অনেক আনন্দ দিয়ে গেছেন।' পাশাপাশি ঋষি কাপুরের মৃত্যুতে  নুসরত জাহান জানিয়েছেন, 'এটা সত্য়িই খুব  হৃদয়বিদারক খবর। আপনার অভিনীত ফিল্মের মত আর দ্বিতীয়টি তৈরী হবে না। আপনি যেখানেই থাকুন-শান্তিতে থাকুন। প্রার্থনা এবং দুয়া জানাই তাঁর পরিবার এবং ভক্তকূলের জন্য়।'

 

আরও পড়ুন, 'অস্ট্রেলিয়াতে প্রত্য়েক সন্ধেবেলা ওনার থেকে মজার গল্প শুনতাম', ঋষি কাপুরের মৃত্যুতে স্মৃতির শহরে ঋতুপর্ণা

বুধবার ইরফান খানের পর চিরঘুমের দেশে গেলেন ঋষি কাপুর। অত্যন্ত সংকটজনক অবস্থায় বুধবারই হাসপাতালে ভরতি ছিলেন তিনি। মুম্বইয়ের এইচএন রিলায়েন্স হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছিল তাঁকে। আইসিইউতেই রাখা হয়েছিল প্রবীণ বলিউড অভিনেতাকে। চলতি বছরেরই ফেব্রুয়ারি মাসে দিল্লির দূষণে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন ঋষি কাপুর। সেসময়ও হাসপাতালে ভরতি করতে হয়েছিল তাঁকে। যার জন্যে একমাত্র ভাগনে আরমান জৈনের বিয়েতে যেতে পারেননি ঋষি, নীতু ও রণবীরের কেউই। তাঁর মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমেছে চলচ্চিত্র জগতে। উল্লেখ্য়, গত বছর কর্কটরোগকে জয় করে স্ত্রী নিতুকে নিয়ে দেশে ফিরেছিলেন ঋষি কাপুর। ধীরেধীরে সুস্থও হয়ে উঠেছিলেন। কিন্তু মাসখানেক ঘুরতেই ফের অসুস্থ হয়ে পড়লেন বলিউডের প্রবীণ অভিনেতা। বুধবারই অভিনেতা ইরফান খান প্রয়াত হয়েছেন। আর তারই মাঝে   ঋষি কাপুরের চলে যাওয়ায় শোকের ছায়া সারা দেশে।
 

আরও পড়ুন, 'আমার নতুন ছবি 'কয়েদখানা'তে অভিনয়ের কথা ছিল ইরফানের', অনেক অজানা কথা বললেন পরিচালক গৌতম ঘোষ