নাগরিকত্ব আইন নিয়ে দেশ জুড়ে চলছে প্রতিবাদ আন্দোলন। সাধারণ মানুষের মত পথে নেমেছে বিরোধীরা। আইন নিয়ে অনেকটাই ব্যাকফুটে মোদী সরকার। এই অবস্থায় বলিউডের সমর্থন পেতে বৈঠক ডেকেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু তাতে অনুপস্থিত থাকলেন নামজাদা অধিকাংশ বলি তারকাই।

তবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গোয়ালের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হওয়া এই বৈঠকে হাজির ছিলেন সেন্সর বোর্ডের প্রধান প্রসূন যোশী, প্রযোজক রীতেশ সিদওয়ানি এবং ভূষণ কুমার। বৈঠকে অংশ নেন পরিচালক অভিষেক কাপুর এবং অভিনেতা রণবীর শোরেও।

আরও পড়ুন : উপদেশ নয় নিজের দেশে সংখ্যালঘুদের রক্ষা করুক পাকিস্তান, কড়া প্রতিক্রিয়া মোদী সরকারের 

বৈঠকের পর মুম্বইয়ের এক পাঁচতারা হোটেলে আয়োজন করা হয়েছিল নৌশভোজের। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে হোটেলে চত্বরে মোতায়েন করা হয়েছিল প্রচুর পুলিশ বাহিনী। 

" বৈঠক ভাল হয়েছে। নাগরিকত্ব আইন নিয়ে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে সরকার। সমাজের সবক্ষেত্রে এই ধরণের বৈঠকের আরও প্রয়োজন রয়েছে। আমি সিএএ নিয়ে কোনও সমস্যা দেখছি না এবং আশা করব মানুষেরও এই নিয়ে ভুল ভাঙবে। " বৈঠক শেষে বলেন শোরে।

আরও পড়ুুন : সপ্তাহে কাজের দিন কমে হচ্ছে ৪, করতে হবে ৬ ঘণ্টা কাজ, ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

বৈঠকে উপস্থিতদের তালিকায় ছিলেন রাহুল রাওয়াল, সঙ্গীত পরিচালর অনু মালিক, চিত্রপরিচালক কুণাল কোহলি, অভিনেতা শৈলেশ লোধা, সঙ্গীতশিল্পী কৈলাশ খের, রূপকুমার রাঠোর এবং শান।

এদিকে বৈঠক চলাকালীন হোটেলের বাইরে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন কিছু সাধারণ মানুষ। সূত্রের খবর প্রযোজক মহাবীর জৈন এই বৈঠকের উদ্যোগ নিয়েছিলেন। এরআগে গত জানুয়ারিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বলিউডের বৈঠকের আয়োজন করেছিলেন জৈন। সেই বৈঠকে বলি তারকাদের সঙ্গে তোলা প্রধানমন্ত্রী ছবি ভাইরাল হয়েছিল।

তবে নাগরিকত্ব আইনের সমর্থনে থাকা বৈঠকে গড়হাজির ছিলেন অধিকাংশ বলি তারকাই। আমন্ত্রণ পেয়েও বৈঠকে আসেননি জাভেদ আখতার, ফারহান আখতার, রিচা চাড্ডা, কবীর খান এবং করণ জোহরের মত ব্যক্তিত্বরা। 

সরকারের নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে ইতিমধ্যে মুখ খুলেছেন বলিউডের একাধিক ব্যক্তিত্ব। যাদের মধ্যে রয়েছেন চিত্রপরিচালক অনুভব সিন্হা, অনুরাগ কাশ্যপ এবং অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর। আবার এই আইন নিয়ে চুপ থাকার দরুণ সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন বলিউডের তিন খান।