সোশ্যাল মিডিয়ায় লাভি-ডাভি পোস্ট দীপিকা পাডুকোনের। রণবীর সিংকে চেপে ধরে চুমু খাচ্ছেন দীপিকা। এমন ভিডিও পোস্ট করেছিলেন স্বয়ং দীপিকা পাডুকোন। তারপরই সকলের প্রশংসায় ভরছে কমেন্ট সেকশন। করিশ্মা কাপুর এই ভিডিও দেখে হার্ট রিয়্যাক্ট করেন। দীপিকা এবং রণবীরের পিডিএ অর্থাৎ পাব্লিক ডিসপ্লে অফ আফেকশন নিয়ে তাঁদের ভক্তদের সংখ্যাও যেমন ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে তেমনই তাঁদের নিন্দুকদের সংখ্যাও নেহাতই কম নয়। সম্প্রতি একটি ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া এসে চলেছে নেটদুনিয়ায়। গোলিও কি রাসলীলা রামলীলা ছবির সেট থেকেই শুরু হয় তাঁদের প্রেমালাপ। 

আরও পড়ুনঃদিশার আত্মহত্যার খবরে শোকপ্রকাশ সুশান্তের, বহুতল থেকে ঝাঁপ প্রাক্তন ম্যানেজারের

ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের শ্যুট করতে করতেই রিয়েল লাইফেও ঘনিষ্ঠতায় মজে যান তাঁরা। দিনের পর দিন ফিল্ম সেটে তাঁদের ঘনিষ্ঠতা পরিবর্তিত হয় ভালবাসায়। সেখান থেকে একসঙ্গে পথচলা শুরু তাঁদের। ফিল্ম সেটে তাঁদের ঘনিষ্ঠতা কীভাবে শুরু হয়। সেই ভিডিও লিক হয়েছে নেটদুনিয়ায়। সেটে সকলের সামনে দীপিকাকে টেনে ধরলেন দীপিকা। ঘনিষ্ঠ হয়ে উঠলেন জনসমক্ষে। এই ভিডিও এখন ঘুরে ফিরে বেড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ার ফিডে। তাঁদের এই ঘনিষ্ঠ ভিডিও নিয়ে চর্চা তুঙ্গে। কেউ প্রশংসার পুল বাঁধছে তো কেউ নিন্দায় ভরিয়ে তুলছে কমেন্ট সেকশন। প্রসঙ্গত, দীপিকা পাডুকোনের বিশেষ উদ্যোগেও প্রশংসার পুল বাঁধছে নেটিজেনরা। পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে চিন্তা ভাবনা, গার্হস্থ্য হিংসা নিয়ে আওয়াজ তোলা সবই বলিউডে হয়ে আসছিল এতদিন ধরে। 

আরও পড়ুনঃরণবীরের প্রতি ক্যাটের দুর্বলতা আজও একই রকম, প্রাক্তন প্রেমিকের বিয়েতে যেতে নারাজ তিনি, ভাইরাল ভিডিও

 

এবার মানসিক অবসাদে থাকা মানুষদের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলেন দীপিকা পাডুকোন। নিজের ইনস্টাগ্রামে একটি গাইড তৈরি করেছেন দীপিকা। সেখানেই ধীরে ধীরে আপলোড করবেন নানা উপায়। যা সাহায্য করবে মানসিক অবসাদ ভোগা মানুষদের। তিনি সেই গাইডটি শেয়ার করে লিখেছেন আমাদের শারীরিক অবস্থা মতই মানসিক অবস্থাও অত্যন্ত জরুরি। দীপিকা পাডুকোন সে সকল কম সংখ্যক তারকাদের মধ্যে পড়েন যিনি নিজের মানসিক অবসাদ নিয়ে প্রকাশ্যে কথা বলেছেন। এবং সেই বিষয়  অসংখ্য সাক্ষাৎকারও দিয়েছেন। আজও তিনি বেশ কিছু সাক্ষাৎকারে নিজের সেই মুহূর্তগুলির কথা বলতে বলতে কেঁদে ফেলেন। লকডাউন থাকুক বা না থাকুক, যে বিষয়টি খুব সহজেই সকলেই এড়িয়ে যায়, তা হল মানসিক অবসাদ। এখনও এমন অনেক মানুষ আছেন যারা মানসিক অবসাদকে পাগলামোর নাম দিয়ে বেড়ায়। তবে শরীরিক সুস্থতার মতই যে মানসিক সুস্থতাও অত্যন্ত প্রয়োজনীয় তা বোঝালেন দীপিকা।